জলপাইগুড়িঃ  জেলেদের জালে ধরা পড়লো সোনালী বোয়াল। জলপাইগুড়ি’র করলা নদীতে বিশাল আকারের এই বোয়ালটি ধরা পড়েছে। দীর্ঘদিন ধরে অপরিষ্কার অবস্থায় পড়েছিল করলা নদী। আর তা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে লড়াই-আন্দোলন চালিয়ে গিয়েছিলেন পরিবেশ কর্মীরা। অবশেষে নদীতে মৎস্যজীবীদের জালে মাছ ধরা পড়তেই খুশি পরিবেশ কর্মীরা। কারণ, বোয়াল মিষ্টি জলের মাছ। জলপাইগুড়ির করলা নদীর ঝোলনা ব্রিজ এলাকায় বিষ্ণু রায় নামে এক মৎস্য শিকারী নদীতে টাগী ফেলে (টাগীঃ বড়শী তে মাছের টোপ দিয়ে তাতে সুতো লাগিয়ে বোতলে জড়িয়ে) বিশাল আকারের এই বোয়াল মাছটি ধরেন।

জানা যাচ্ছে, অত্যন্ত সুস্বাদু পেল্লায় সাইজের সোনালী বোয়ালটি প্রায় ছয় কিলো হবে। যেই মাছের বর্তমানে যার বাজার দর অন্তত ১০০০/- কিলো।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালে ১৬ নভেম্বর করলা নদীতে ভয়ানক বিষক্রিয়া হয়েছিল। ভেসে উঠেছিল পেল্লায় সাইজের এই জাতীয় বোয়াল সহ অন্যান্য মাছ। সেই সময় বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছিল, এই মৎস্য ভান্ডার ফের নদীতে ফিরে আসতে বেশ কয়েকবছর সময় লাগবে। কিন্তু সেই সময় আর লাগবে না বলেই মনে করছেন পরিবেশবিদরা। শুধু তাই নয়, এই সাইজের মাছ ধরা পড়ার পর মৎস্য শিকারীরা মনে করছেন আবার তাদের সুদিন ফিরে এলো।