স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: প্রচারের দলীয় পতাকা লাগানোকে কেন্দ্র করে বসচা৷ বিজেপির মহিলা কর্মীকে মারধরের অভিযোগ৷ নিশানায় রাজ্যের শাসক দল৷ পুলিশের বিরুদ্ধে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ৷ প্রতিবাদে রাস্তায় বসে জগদ্দল থানা ঘেরাও করে রাখলেন ভাটপাড়ার বিধায়ক অর্জুন সিং৷

বহু দিন তাঁকে এই ভাবে দেখা যায়নি৷ কিন্তু দল বদলে অর্জুন সিং এখন বিরোধী বিজেপিতে৷ তাই ফের স্বমহিমায় ভাটপাড়ার বেতাজ বাদশা৷ রাফ এন্ড টাফ ভূমিকায় বারাকপুরের গেরুয়া প্রার্থী৷

বিজেপির অভিযোগ এদিন ভাটপাড়া পৌরসভার ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে প্রচারের কাজ চলছিল৷ দলের পতাকা লাগাতে গেলে মহিলা কর্মীদের বাধা দেওয়া হয়৷ প্রথমে বচসা হয়৷ সেই সময় ছিলেন ভাটপাড়া পুরসভার ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর সত্যেন রায়৷ পরে মহিলা বিজেপি কর্মী সাথি পাইনকে মারধর করা হয়৷  প্রতিবাদ করলে প্রাণে মেরে ফেলারও হুমকি দেওয়া হয়৷ দুষ্কৃতীরা তৃণমূল আশ্রিত বলে দাবি অর্জুন সিংয়ের৷

ভাটপাড়ার বিধায়ক ও বিজেপির বারাকপুর লোকসভার প্রার্থীর অভিযোগ জগদ্দল থানায় এভিযোগ জানাতে যান বিজেপি কর্মীরা৷ কিন্তু থানা সেই অভিযোগ নিচ্ছে না৷ উলটে শাসক দলের লোকেদেরআড়াল করার চেষ্টা করছে৷

প্রতিবাদে এদিন থানা ঘেরাও করেন অর্জন সিং ও গেরুয়া বাহিনী৷ জগদ্দল তানার সামনেই রাস্তায় বসে পড়েন তারা৷ ফলে উত্তেজনা দেখা দেয় এলাকায়৷ প্রতিবাদে সোমবার রেল অবরোধ কর্মসূচির ডাক দিয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা জেলা বিজেপি নেতৃত্ব৷