কলকাতা: যাদবপুর ক্যাম্পাসেও এবার করোনার থাবা৷ যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের এক কর্মীর রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে৷ এরপরই যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সমস্ত বিভাগের অফিস আপাতত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গিয়েছে, আক্রান্ত কর্মী বিশ্ববিদ্যালয়ের রিসার্চ অ্যাসিস্ট্যান্ট।

গত সপ্তাহের বৃহস্পতিবার শেষবারের জন্য ক্যাম্পাসে এসেছিলেন তিনি৷ সেই সময়ই অসুস্থ বোধ করেন। তারপরেই বাড়ি ফিরে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন৷ তারপরই তার করোনা পরীক্ষা করা হয়৷ বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মী করোনা আক্রান্ত হওয়ায় ১২ জুলাই পর্যন্ত বন্ধ রাখা হয়েছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস৷

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সমস্ত বিভাগের অফিস বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে৷ যাদবপুরের সল্টলেক ক্যাম্পাসও আপাতত বন্ধ৷ যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিষ্ট্রার স্নেহমঞ্জু বসু জানিয়েছেন, “আপাতত ১২ জুলাই পর্যন্ত বন্ধ রাখা হচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়। সে ক্ষেত্রে যদি দেখা যায় বিশ্ববিদ্যালয় আরও কেউ অসুস্থ হয়ে পড়ছেন, পরিস্থিতি বুঝে প্রশাসনিক কাজ বন্ধের সময়সীমা বাড়ানো হতে পারে। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের যে জরুরি পরিষেবা, তা স্বাভাবিক থাকবে।”

এই বন্ধ থাকাকালীন সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়কে সানিটাইজ করা হবে বলে জানিয়েছেন রেজিস্ট্রার। বিশ্ববিদ্যালয়টি রাজ্য সরকারের অর্থায়নে পরিচালিত এবং এর প্রধান ক্যাম্পাস যাদবপুর-এ অবস্থিত।এটি পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের কলকাতা শহরে অবস্থিত।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ