স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : রবিবারের সাত সকালের বৃষ্টিতে এক ধাক্কায় নামল পারদ। এমনটাই জানাচ্ছে হাওয়া অফিসের পারদ মাপক যন্ত্র।

রবিবার সকালে হঠাৎ করেই বৃষ্টি হয় কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে। তার জেরেই নেমে যায় বিগত কয়েকদিনে অনেকটা বেড়ে যাওয়া তাপমাত্রা। আজ কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৫.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি কম। শনিবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৭.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি ছিল। রবিবারের বৃষ্টিতে তা অনেকটাই নেমেছে তা স্পষ্ট। শনিবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৫.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিক।

তবে শুক্রবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল স্বাভাবিকের অনেক নীচে, ২২.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। স্বাভাবিকের থেকে পাঁচ ডিগ্রি কম ছিল। শনিবার তা পুরো পাঁচ ডিগ্রি উপরে উঠে এসেছিল। বৃহস্পতিবার পারদ স্বাভাবিকের থেকে আট ডিগ্রি কম ছিল, ২৬.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শুক্রবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ওই আট ডিগ্রি উপরে উঠে এসে হয়েছিল ৩৪.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম ছিল। রবিবার শহরের আর্দ্রতার পরিমান সর্বোচ্চ ৯২ শতাংশ, সর্বনিম্ন ৫১ শতাংশ। বৃষ্টি হয়েছে ১.১ মিলিমিটার। এই বৃষ্টিতেই পারদ নামল দুই ডিগ্রি।

প্রসঙ্গত শনিবার দুপুর থেকেই বিভিন্ন জেলায় ঝড় বৃষ্টি হয়। মুর্শিদাবাদে সন্ধ্যা থেকে ব্যাপক বৃষ্টি হচ্ছে বলে খবর মিলেছে। কলকাতাতেও বড় ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হলেও আদতে তা হয়নি। রবিবার সকালে সেই ঝড় বৃষ্টি হয়। সকাল বেলায় হাওড়া , হুগলি, বর্ধমান, উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় , নদীয়া, মুর্শিদাবাদ থেকেও বৃষ্টির খবর মিলেছে।

তবে আগামী কয়েকদিন উত্তরবঙ্গে বৃষ্টির সম্ভাবনা বেশি। উত্তরবঙ্গের পাঁচ জেলা দার্জিলিং কালিম্পং আলিপুরদুয়ার জলপাইগুড়ি কোচবিহারে ঝড় বৃষ্টি হবে। সঙ্গে থাকবে ঝড়ো হাওয়া। যার গতিবেগ থাকবে ৪০ থেকে ৫০ কিমি প্রতি ঘন্টা। ওই সময়ে উত্তরবঙ্গে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। বর্জ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি হতে পারে পাহাড়ে।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প