স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : সকাল থেকেই আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি ভোগাচ্ছে শহরবাসীকে। বাড়ছে তাপমাত্রাও। অস্বস্তিকর আবহাওয়ার জেরে দু’ এক পশলা বৃষ্টি মিলতে পারে। তবে তা পরিস্থিতিকে আরও গুমোট বাড়িয়ে দিতে পারে বলে জানাচ্ছে হাওয়া অফিস।

কলকাতায় বুধবার সকালে তাপমাত্রা সর্বনিম্ন ২৮.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। মঙ্গলবার বিকেলে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪.০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। বাতাসে আপেক্ষিক আদ্রতার পরিমাণ ৬৯ থেকে ৯৪ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টি হয়নি। দমদমে , সল্টলেক কোথাও বৃষ্টি হয়নি। কলকাতায় মঙ্গলবার সকালে তাপমাত্রা ছিল সর্বনিম্ন ২৭.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি ছিল। সোমবার বিকেলে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি ছিল। বাতাসে আপেক্ষিক আদ্রতার পরিমাণ ছিল ৭২ থেকে ৯৫ শতাংশ। বৃষ্টি হয় ৩.৩ মিলিমিটার। দমদমে ০.৮, সল্টলেকে ১০.৪ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। সেই বৃষ্টি পুরোপুরি উধাও হয়েছে শহর থেকে। সোমবার সকালে শহরের তাপমাত্রা ছিল সর্বনিম্ন ২৭.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। রবিবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। বাতাসে আপেক্ষিক আদ্রতার পরিমাণ ছিল ৬৯ থেকে ৯৪ শতাংশ। বৃষ্টি হয় ছিটেফোঁটা। সবমিলিয়ে টানা তিন দিন এমনই অস্বস্তিকর আবহাওয়ার জারি রইল শহরে।

এদিকে একেই বৃষ্টি কম হচ্ছিল দক্ষিণবঙ্গে। তার উপর আরও খারাপ খবর জানিয়েছে হাওয়া অফিস। শুধু এই তিন দিন নয় আগামী আরও কয়েকদিন বৃষ্টি হীন অস্বস্তিকর দিন কাটাতে হবে শহরবাসীকে। কারণ হাওয়া অফিস জানাচ্ছে, এবার সমগ্র রাজ্যেই বৃষ্টি কমে যাবে নিম্নচাপ রাজ্য থেকে দূরে সরে যাওয়ার জন্য। দক্ষিণবঙ্গে বাড়বে আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি।

হাওয়া অফিস জানাচ্ছে , মধ্যপ্রদেশে সরে গিয়েছে আসন্ন নিম্নচাপ। নিম্নচাপ সরে যাওয়ার জেরে রাজ্যে স্বাভাবিকভাবেই বৃষ্টি কমবে। স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া অফিস। দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টি কমার ফলে বাড়বে আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি। অতিরিক্ত আর্দ্রতা থেকে অল্প বিস্তর বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা বৃষ্টির পূর্বাভাস হতে পারে দক্ষিণবঙ্গে। এর থেকে বেশি কিছুর সম্ভাবনা নেই। হাওয়া অফিস জানাচ্ছে যে, ওডিশা ও অন্ধ্র উপকূলে তৈরি হওয়া নিম্নচাপটি ছত্তীসগড়ের উপর দিয়ে মধ্যপ্রদেশে অবস্থান করছিল। সেটি ক্রমে মধ্যপ্রদেশের দিকে সরে যাওয়ায় বৃষ্টির পরিমাণ অনেকটাই কমবে সমগ্র রাজ্যেই। ভোগান্তি বাড়াবে আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি। বুধবার থেকে বৃষ্টি কমবে উত্তরবঙ্গেও।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।