স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : মেঘমুক্ত আকাশ। আর শহরের পারদ ৩৭ ছুঁই ছুঁই। সকালের পারদ স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি বেশি। শেষ পর্যন্ত চৈত্রের কাঠ ফাটা গরম শুরু হল শহরে, তা বলা যেতেই পারে। অন্তত হাওয়া অফিসের তথ্য সেটাই বলছে। সঙ্গে রয়েছে আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তিও। দুপুরে সূর্যের তেজ বাড়বে।

আজ শনিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৬.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি বেশি। শুক্রবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। শুক্রবার আলিপুর ও তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৪.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি ছিল। বুধবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৩.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। কিন্তু বৃহস্পতিবার এক লাফে দুই ডিগ্রি বেড়ে ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস হয়ে যায়, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি ছিল। শুক্রবার সকালে বৃহস্পতিবারের তুলনায় তাপমাত্রা একটু কম হলেও বেলায় তাপমাত্রা বাড়ে। বুধবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, স্বাভাবিকের সামান্য নীচে ছিল। বৃহস্পতিবার তা হয়ে যায় ৩৫.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শুক্রবারে তা ৩৬এ পা রাখে। শনিবার তা ৩৭ ছুঁতে পারে বলে জানাচ্ছে হাওয়া অফিস। শনিবার অলিপুরের আর্দ্রতার পরিমাণ ছিল সর্বোচ্চ ৯৭ শতাংশ , সর্বনিম্ন ২৫ শতাংশ।

সল্টলেকে সকালের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৩১.০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দমদম অঞ্চলের তাপমাত্রা সর্বনিম্ন ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস।