কলকাতা: করোনা সংক্রমণ আটকাতে সারা দেশ জুড়ে চলছে লকডাউন। স্তব্ধ হয়ে রয়েছে বিনোদন জগতও। তারকারা ঘর থেকেই যতটা সম্ভব নিজেদের কাজ করছেন। টেলিভিশন চ্যানেলগুলি পুরনো অনুষ্ঠান দেখাচ্ছে। তাই একটা প্রশ্নই ঘুরে বেড়াচ্ছে, কবে আবার শুরু হবে টলিপাড়ার শ্যুটিং। কিন্তু এখনই শুরু হওয়ার কোনও সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে না।

লকডাউন শেষ হলেই কি শুরু হবে শ্যুটিং, এই নিয়েই জল্পনা চলছে। কিন্তু মঙ্গলবার অ্যাসোসিয়েশন অফ টেলিভিশন প্রোডিউসরস একটি বিবৃতি জারি করে। সেখানে স্পষ্ট করে বলা হয়, যতক্ষণ না পর্যন্ত সরকার কোনও নির্দেশ দিচ্ছে ততক্ষণ শ্যুটিং শুরু হবে না। ফিকশন অনুষ্ঠানের প্রযোজকরাই এই সিদ্ধান্তে এসেছেন যে, সরকারি অনুমোদন ছাড়া আবার শ্যুটিং শুরু করা যাবে না।

প্রত্যেকের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কারণ অ্যাসোসিয়েশন অফ টেলিভিশন প্রোডিউসরস থেকেই জানানো হয়েছে যে, প্রত্যেক কর্মীর স্বাস্থ্য গুরুত্বপূর্ণ। তাই কোনও ঝুঁকি নেওয়া যাবে না। এতদিন ধরে করোনা মোকাবিলার জন্য লকডাউন চলছে। কিন্তু লকডাউন ওঠার পরেই যদি শ্যুটিং শুরু হয়, এত দিনের কষ্ট বিফলেও যেতে পারে। তাই এখন শ্যুটিং শুরু হওয়ার প্রশ্নই নেই। বরং পরিস্থিতির উপর নজর রেখে এবং সরকারি অনুমোদন পেলেই শুরু হবে শ্যুটিং।

ডিরেক্টরস অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে প্রস্তাব রাখা হয়েছিল, কবে শ্যুটিং শুরু করা যায়। বহুদিন ধরেই এই নিয়ে আলোচনা চলছিল। এ প্রসঙ্গে প্রযোজক শৈবাল বন্দ্যোপাধ্যায় বলছেন, মধ্যে মেক-আপ, ক্যামেরা, শিল্পী সব সংগঠনের প্রধানদের বসতে হবে আলোচনায়। এছাড়াও স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ও সরকারের নির্দেশিকা মেনে চলতে হবে। তাই কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের কথা মেনেই চলা আমাদের উচিত।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।