ফাইল ছবি

বেঙ্গালুরু: চন্দ্রায়ন ২-এর অভিযানের নতুন তারিখ ঘোষণা করল ইসরো৷ বৃহস্পতিবার সকালে একটি ট্যুইট করে ইসরো জানিয়েছে ভারতের চন্দ্রাভিযানের মুকুটের নতুন পালক চন্দ্রায়ন ২ আগামী সোমবার অর্থাৎ ২২শে জুলাই চাঁদের উদ্দেশে রওনা দেবে৷

এদিন দ্যা ইণ্ডিয়ান স্পেস রিসার্চ অর্গানাইজেশন বা ইসরো জানায়, প্রাথমিকভাবে যে ত্রুটি ধরা পড়ছিল, তা মেরামত করার পর ফের অভিযানের জন্য তৈরি চন্দ্রায়ন ২৷ আগামী সোমবার অর্থাৎ ২২ শে জুলাই দুপুর ২টো বেজে ৪৩ মিনিটে চন্দ্রায়ন ২-এর অভিযানের সময় নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ইসরো৷

উল্লেখ্য ১৫ই জুলাই শ্রীহরিকোটার সতীশ ধাওয়ান স্পেস রিসার্চ সেন্টার থেকে অভিযান শুরু করার কথা ছিল চন্দ্রায়ন ২-এর৷ ৫৬ মিনিট ২৪ সেকেন্ড আগে এই অভিযান বাতিল করা হয়। জানা যায়, শেষ মুহূর্তে প্রযুক্তিগত ত্রুটি পাওয়া যায় মহাকাশযানে। আর এরপরেই এই অভিযান স্থগিত করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন মহাকাশ বিজ্ঞানীরা।

বিজ্ঞানীরা জানান, ৫৬ মিনিট আগে তরল হাইড্রোজেন এবং তরল অক্সিজেন ভরার কাজ চলছিল রকেটে। আর তা করার সময় একটা ছিদ্র দেখা যায়। আর এরপরেই তড়িঘড়ি বাতিল করা হয় এই অভিযান। কীভাবে এই ছিদ্র এল তা নিয়ে তদন্ত শুরু করেন গবেষকরা। আর তা করতে প্রায় ১০দিন লেগে যেতে পারে বলে জানা গিয়েছিল৷

জানা গিয়েছিল চলতি বছরের ৬ই সেপ্টেম্বর চন্দ্রপৃষ্ঠে অবতরণ করবে এই মহাকাশযান৷ চন্দ্রায়ন ২-এর তিনটি মডিউল৷ ল্যাণ্ডার (বিক্রম), অরবিটার ও রোভার (প্রজ্ঞান)৷ মূলত জলের সন্ধানে এবার চন্দ্রাভিযান ছিল ভারতের৷ এই রোভারে ছিল মোট ১১টি অংশ৷ এর মধ্যে ভারতের ছটি, তিনটি ইউরোপের, ২টি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের৷

এই প্রসঙ্গে ডিআরডিও-র ডিরেক্টর অফ পাবলিক ইন্টারফেস রবি গুপ্তা জানিয়ে ছিলেন, চন্দ্রায়ন ২-র উড়ান বন্ধ করার সিদ্ধান্ত একেবারে সঠিক ছিল৷ নয়তো বড়সড় বিপদ হতে পারত৷ এই ধরণের অভিযানে কোনও ঝুঁকি নেওয়া উচিত নয়৷ ইসরোর সিদ্ধান্ত একেবারে যথাযথ ও সময়োপযোগী৷