একদিকে যখন ডোকালাম ইস্যুতে ক্রমশ উত্তেজনা বাড়ছে ভারত-চিন সীমান্তে। ঠিক সেই সময়ে বিশ্বের তাবড় তাবড় দেশের ঘুম ছুটিয়ে ইজরায়েলের সঙ্গে বিশাল মহড়া শুরু করতে চলেছে ভারত। ইতিহাসে এই প্রথমবার ইজরায়েলের সঙ্গে মহড়া করতে চলেছে ভারতীয় বায়ুসেনা। গত কয়েকমাস আগেই ইজরায়েল সফরে যান প্রধানমন্ত্রী মোদী। দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক আরও মজবুত করতেই ভারত-ইজরায়েল এই যৌথ সামরিক মহড়া করতে চলেছে।

শুধু ভারতই নয়, দুই সপ্তাহের এই মহড়ায় অংশ নেবে আমেরিকা, ফ্রান্স, জার্মানি, গ্রিস এবং পোল্যান্ডসহ আট দেশের বিমান বাহিনী। ২০১৩ সাল থেকে ইজরায়েলে অনুষ্ঠিত হচ্ছে দ্বিবার্ষিক এই মহড়া। এবারের মহড়ায় আট দেশের প্রায় ১০০ যুদ্ধবিমান অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে। মহড়ায় আকাশ থেকে আকাশ এবং আকাশ থেকে ভূমিতে যুদ্ধের অনুশীলনের পাশাপাশি উচ্চ পর্যায়ের ম্যানুভারিংও থাকবে।

গত মাসে তেল আবিবে অনুষ্ঠিত আইএসডিইএফ মেলায় ভারতের ৫৫টি সংস্থা অংশ নিয়েছে। প্রতিরক্ষা বিষয়ক এই মেলায় প্রথমবারের মতো ভারতীয় সংস্থাগুলো এতো ব্যাপকহারে অংশ নেয়। এবার নজিরবিহীনভাবে বিশাল এই মহড়ায় ইজরায়েলের সঙ্গে সমানে টক্কর দেবে ভারতীয় বিমানবাহিনীও।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.