নয়াদিল্লি: জঙ্গি অনুপ্রবেশ রুখতে এবং শত্রুপক্ষের গোলাগুলি বন্ধ করতে এক নয়া উদ্যোগ নিল ভারত৷ ইজরায়েলের অত্যাধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে সীমান্তে দেওয়াল তৈরি করবে ভারত৷ শত্রুপক্ষ সীমান্ত পেরোলেই তা ধরা পড়বে সিসিটিভি ক্যামেরায়৷ আর সেই বার্তাটি পৌছে যাবে ‘ক্যুইক রেসপন্স টিম’র কাছে৷

সিসিটিভি মারফত জঙ্গি অনুপ্রবেশের বিষয়টি ধরা পড়লেই ভারতীয় সেনা পাল্টা প্রত্যাঘাত করবে শত্রুপক্ষকে৷ সবথেকে কাছের সেনাঘাঁটিতে থাকা জওয়ানেরা জঙ্গিনিধনে ছুটে যাবে৷ এই নয়া প্রযুক্তির মাধ্যমে তৈরি প্রজেক্টির নাম সিআইবিএমএস বা কম্প্রিহেনসিভ ইন্টিগ্রেটেড বর্ডার ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম৷

কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে জানা গিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আগামী আর কয়েক বছরের মধ্যেই ভারত-পাকিস্তান এবং ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত সিল করে দেওয়ার পরিকল্পনা ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে৷ প্রায় ৬৩০০কিমি সীমান্ত জুড়ে এই নয়া প্রাচীর তৈরি করা হচ্ছে৷ সীমান্তে পয়েন্ট-এ থেকে পয়েন্ট-বি অবধি সেনারা টহলদারি চালায়৷ কিন্তু সেই ব্যবস্থাটিই এবার পরিবর্তন করা হবে৷

জঙ্গি অনুপ্রবেশের বিষয়টি সম্পূর্ণভাবে দেখবে এবার বিশেষ ক্যুইক রিঅ্যাকশন টিম৷ এক নয়া প্রযুক্তির মাধ্যমে এই প্রাচীরটি তৈরি করা হবে৷ দীর্ঘদিন ধরেই পরীক্ষামূলক স্তরে রয়েছে এই প্রাচীর তৈরির কাজটি৷

সেনা সূত্রে জানা গিয়েছে, ক্যুইক রেসপন্স টিমে সর্বদা দুজন কিংবা তিনজন ব্যক্তি সর্বক্ষণ নজরদারি চালাবে৷ সীমান্তে সিসিটিভি ক্যামেরাতে থাকবে বিশেষ একটি সফটওয়্যার৷ সীমান্তের পরিস্থিতির কোনওরকম কোনও পরিবর্তন ঘটলেই তা সঙ্গে সঙ্গে ধরা পরবে এবং সঙ্গে সঙ্গে অ্যালার্ম বাজবে৷ যখনই অ্যালার্ম বাজবে আর সঙ্গে সঙ্গে তা সীমান্তের কাছের সেনাঘাঁটি থেকে ছুটে আসবে সেনা জওয়ানেরা৷ জানা গিয়েছে, ইজরায়েলে যে প্রযুক্তির মাধ্যমে কাজ হয়৷ সেই প্রযুক্তির মাধ্যমেই এই নয়া প্রাচীর তৈরি করবে এবার ভারত৷