বাঘউস: আইএসআইএস দলের কয়েক ডজন জঙ্গিরা গত রবিবার পূর্ব সিরিয়ায় মার্কিন সমর্থিত বাহিনীর কাছে আত্মসমর্পণ করে। খিলাফতের পরের দিন তাঁরা নিজেদের পরাজিত হিসেবে ঘোষণা করে।

সিরিয়ার আধা-স্বায়ত্তশাসিত কুর্দিস অঞ্চলের শীর্ষ পররাষ্ট্র কর্মকর্তারা আইএস সদস্যদের সতর্ক করে দিয়েছে হামলার সময় আটক করার ক্ষেত্রে। সিরিয়ার কুর্দিসরা সতর্ক করেছে, প্রতো-রাষ্ট্রের মৃত্যু সত্ত্বেও হাজারো বিদেশী জঙ্গীদের আটক করা হয়েছে। তারা একটা সময় বিশ্বের জরুরী প্রয়োজনের জন্য বোমা ব্যবহার করছে।

এএফপি ‘ র একজন সাংবাদিক দেখেন, ডজন খানেকের মত মানুষকে, যাদের বেশীর ভাগই পুরুষ, তারা ইরাক সীমান্তের কাছে বাঘউসের প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে আসা এক পিক আপ ট্রাকে ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় পড়ে আছে।

কুর্দিশ মুখপাত্র জিজাকির আমেদ বলেন, “তারা মুক্তি যোদ্ধাদের টানেল থেকে বের হয়ে এসেছে এবং আজই আত্মসমর্পণ করেছে। কিছু কিছু পুরুষ কালো রঙের পোশাকের ওপর লম্বা উলের কাফতানি পড়েছিলেন অথবা তাদের মুখের চারপাশে স্কার্ফ ছিল। অন্যরা এখনো ভিতরে লুকিয়ে থাকতে পারে।”

কুর্দিস নেতৃত্বাধীন সিরিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ফোর্সেস-র এই ঘোষণায় বিশ্ব নেতারা শনিবার ঘোষণা করেছেন, সিরিয়ায় আইএসআইএস দ্বারা নিয়ন্ত্রিত ভূমিতে নিয়ন্ত্রণ আর নেই। কিন্তু দেশটির আধা-স্বায়ত্তশাসিত কুর্দিস অঞ্চলের শীর্ষ বিদেশী কর্মকর্তারা এই হামলার সময় আটক সদস্যদের সতর্ক করে দিয়েছে যে তারা এখনো হুমকির সম্মুখীন। “কয়েক হাজার যোদ্ধা, শিশু এবং নারী ৫৪ টি দেশ থেকে রয়েছেন। ইরাকিরা এবং সিরিয়ানরা শুধু নয়, যারা আমাদের আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের জন্য একটি মারাত্মক এবং বিপদজনক বোঝা।”

আবদেল করিম ওমর বলেছেন, “বাঘাউজ অপারেশনের গত ২০ দিনের সময় সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। ” আইএসআইএস-এর স্লিপার সেলের মাধ্যমে বিপদ সম্পর্কে সতর্ক করেছেন। আইএসডিএফ এলাকায় অবশিষ্ট সন্ত্রাসীদের বের করে দেওয়ার জন্য অপারেশন চালিয়ে যেতে এবং সম্ভাব্য অস্ত্র নগদে কিনে আনতেও বলেছেন তিনি।

এই ব্যাক-ক্লিয়ারেন্স অপারেশনটি ইচ্ছাকৃত এবং পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে এলাকার জন্য দীর্ঘমেয়াদী নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সাহায্য করবে। ” মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোটের মুষড়ে পড়া এডিএফ টুইটারে লিখেছে, কয়েক ডজন আইএসআইএস দল জঙ্গিদের কাছে সুড়ঙ্গ থেকে আত্মপ্রকাশ করে ইউএস-সমর্থিত বাহিনীতে যোগ দিয়েছে ।