ওয়াশিংটন:  লাগাতার হামলা। একের পর ঘাঁটি লক্ষ্য করে সামরিক বাহিনীর হামলা। স্থল হোক কিংবা আকাশপথ, আইএস জঙ্গিদের সমূলে উপড়ে ফেলতে লাগাতার হামলা চালিয়েছে আমেরিকার নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট। এই অবস্থায় পুরোপুরি কোনঠাসা হয়ে পড়েছে গোটা বিশ্বে আতঙ্ক ছড়িয়ে দেওয়া এই জঙ্গি সংগঠন। এই অবস্থায় নিজেদের জঙ্গিদের বেতন কাটছাঁট করছে আইএস৷

বায়া-আল-মালের প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, আইএস যোদ্ধাদের বেতন অর্ধেক করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷ অবস্থা এতটাই খারাপ যে এখন এই অবস্থায় এসে ঠেকেছে আইএস জঙ্গিদের।

তবে সামরিক বিশেষজ্ঞরা বলছে, বছরখানেক আগে তুরস্ক সীমান্ত সিল করে দেওয়া হয়। আর সেই কারণে আইএসের তেলের ব্যবসায় মারাত্মক ভাটা পড়েছে৷ সেইসঙ্গে রাক্কায় ক্রমাগত বিমানহানায় অনেকটাই পিছু হটতে হয়েছে তাদের৷ ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে তাদের তেলের খনি৷ এই পরিস্থিতি বিচার করেই যোদ্ধাদের বেতনে কোপ বসানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইএস নেতৃত্ব৷

গত বছরের ডিসেম্বর পর্যন্ত আইএসের আর্থিক পরিস্থিতি যা ছিল, বর্তমান পরিস্থিতি তার চেয়েও খারাপ৷ অন্যদিকে সামরিক কারবারিদের অন্য অংশ বলছে, বছরখানেক আগে আন্তর্জাতিক জোটশক্তি মসুলে আইএস হেডকোয়ার্টার বোমা মেরে উড়িয়ে দেয়৷ বিপুল পরিমাণ আর্থিক ক্ষতির পর আইএস জঙ্গিদের স্থানীয় মানুষের কাছ থেকে অর্থ সংগ্রহের নির্দেশ দেয় মসুল।