মোসুল (ইরাক): তিন বছরের টানা ভয়ের দিন পার করে অবশেষে ‘মুক্তি’৷  ইসলামিক স্টেটের থেকে অবশেষে মুক্ত হল মোসুল৷ দেশবাসী ও সেনাবাহিনীকে উৎসব করার আহ্বান জানালেন ইরাকের প্রধানমন্ত্রী হায়দর আল আবাদি৷ আইএস ‘মুক্ত’ মোসুল পৌঁছে তিনি সেনাকর্তাদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন৷ এপি, বিবিসি সহ বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে এই ছবিতে দেখা গিয়েছে৷

২০১৪ সালের ১০ জুন ইরাক তথা বিশ্বের অন্যতম প্রাচীন শহরের দখল নিয়েছিল ইসলামিক স্টেট৷ প্রায় ৭০০ বছরের পুরাতন মসজিদ থেকে নিজেকে খলিফা ঘোষণা করে ধর্মীয় রাষ্ট্র গঠনের ডাক দিয়েছিল আল বাগদাদি৷  তারপর দুনিয়া দেখেছে, সেই ধর্মীয় রাষ্ট্রের চেহারা৷  মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছিল মোসুল৷ বিভিন্ন সময়ে সেখানকার অত্যাচারের ছবি দেখে শিহরিত হয়েছিলেন বিশ্ববাসী৷

প্রশ্ন, মোসুলের কোথায় লুকিয়ে আইএসের স্বঘোষিত খলিফা বাগদাদি৷ যদিও রুশ সরকারের দাবি মতো আগেই মৃত্যু হয়েছে এই জঙ্গি নেতার৷ শহরটি দখল করার পর আনাচে কানাচে খোঁজ চলছে বাগদাদির৷ এদিকে মোসুল মুক্ত হতেই সিরিয়ার রাক্কা শহর ঘিরে চূড়ান্ত অভিযানের প্রস্তুতি নেওয়া শুরু হয়ে গেল৷ এই শহরটিকে আইএস তার রাজধানী হিসেবে ঘোষণা করেছে৷ রাক্কার পতন সম্পন্ন হলেই আইএসের বিষদাঁত উপড়ে ফেলা যাবে এমনই মনে করা হচ্ছে৷

শনিবার প্রবল যুদ্ধের পর ইরাকি সেনাবাহিনী সরাসরি মোসুলের পশ্চিম অংশ থেকে আইএস জঙ্গিদের হটিয়ে দিতে পেরেছে৷ এমনই দাবি ইরাক সরকারের৷  বিভিন্ন সংবাদ সংস্থা জানাচ্ছে, জঙ্গিরা কিছু প্রতিরোধ চালিয়ে মোসুলের পুরনো শহরের ছোট একটি এলাকা দখল করে রেখেছিল৷  এখন সেটি ইরাকি সেনার দখল৷