তিউনিসঃ  জোড়া আত্মঘাতী বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে তিউনিশিয়া। গত বৃহস্পতিবার দুপুরে পরপর দুটি বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। আর এই ঘটনায় দায় স্বীকার করল জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট। জঙ্গিদের খোঁজে সে দেশে ব্যাপক ধরপাকড় শুরু করেছে সে দেশের পুলিশ। যদিও আত্মঘাতী এই বিস্ফোরণের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি তিউনিশিয়ার পুলিশ।

পড়ুন আরও- একের পর এক আত্মঘাতী বিস্ফোরণ, দেশজুড়ে প্রবল আতঙ্ক

বৃহস্পতিবার রাজধানীতে ফরাসি দূতাবাসের সামনে দাঁড়িয়ে থাকা এক পুলিশের গাড়িকে লক্ষ্য করে প্রথম হামলা হয়। হামলায় এখনও পর্যন্ত এক পুলিশ নিহত হয়েছে। তবে বিস্ফোরণের ঘটনায় কয়েক জন আহত হয়েছে বলে জানা যায়। একদিকে যখন প্রথম বিস্ফোরণের ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য তৈরি হয় গোটা দেশজুড়ে তখন দ্বিতীয় বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়। সে দেশের সন্ত্রাস দমন শাখার অফিসের সামনে দ্বিতীয় বিস্ফোরণটি ঘটে। বিস্ফোরণের তীব্রতা এতটাই ছিল যে বহু দূর থেকে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়। সেখানেও কয়েক জন আহত হয়েছে বলে জানা যায়।

বৃহস্পতিবার দু’টি বিস্ফোরণ ঘটে। পরপর এভাবে বিস্ফোরণের ঘটনায় গোটা দেশজুড়ে তীব্র আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি হয়। এরপর গোটা রাজধানীতেই নিরাপত্তা বৃদ্ধি করা হয়। শুক্রবার ভারতের তরফে তিউনিশিয়ায় জঙ্গি হামলার কড়া নিন্দা করা হয়। পাশাপাশি নয়াদিল্লির তরফে বলা হল, ভারত বরাবর সব ধরনের সন্ত্রাসবাদের বিরোধিতা করে এসেছে। বিদেশ মন্ত্রকের তরফে একটি বিবৃতিতে তিউনিশিয়ায় জঙ্গি হামলায় হতাহত মানুষের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানানো হয়। সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে সেদেশের সরকার ও মানুষের পাশে থাকার বার্তা দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, তিউনিশিয়ায় এর আগে আত্মঘাতী বিস্ফোরণ হয়েছিল ২০১৫ সালে। প্রেসিডেন্টের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা কর্মীদের বাসে হামলা চালানো হয়েছিল।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ