নয়াদিল্লি: পাকিস্তানের মাটিতে অপদস্ত হতে হলো ভারতীয় কূটনীতিককে। গৌরব আলুওয়ালিয়া নামে এক ভারতীয় কূটনীতিককে তাড়া করল আইএসআইয়ের লোকজন।

রীতিমত বাইক নিয়ে তাড়া করা হল ওই কূটনীতিকের গাড়িকে। সংবাদসংস্থা ইতিমধ্যেই প্রকাশিত হয়েছে সেই ভিডিও। যেখানে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে যে গাড়ির পিছনে ছুটে আসছে একটি লোক। বাইকে থাকা ওই ব্যক্তি পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই এর সদস্য বলে জানা গিয়েছে।

সূত্রের খবর গৌরব আলুওয়ালিয়া বাসভবনের বাইরে অপেক্ষা করছিল আইএসআইয়ের কিছু লোকজন। কেউ ছিল গাড়িতে কেউ ছিল বাইকে। গাড়ি নিয়ে আলুওয়ালিয়া বেরোনোর পরেই এই ঘটনা চোখে পড়ে।

কিছুদিন আগেই নয়াদিল্লির পাক হাইকমিশনে কর্মরত আইএসআই এজেন্ট কে বহিস্কৃত করা হয়েছে। আর সেই ঘটনার ঠিক দুদিন পরে এইভাবে অপদস্ত করা হলো আলুওয়ালিয়া কে।

ভারতীয় গোয়েন্দাদের হাতে ধরা পড়ে যায় আবিদ হোসেন ও মোঃ তাহের নামে ওই দুই ব্যক্তি। এরপরই তাদের ভারত থেকে বহিষ্কার করা হয়।

পাকিস্তানের দূতাবাসের ওই দুই কর্মীকে আটকের পরপরই ইসলামাবাদে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। ইসলামাবাদে ভারতীয় দূতাবাসের এক আধিকারিককে ডেকে পাঠান হয়। ভারতের অভিযোগ ‘ভিত্তিহীন’ বলে দাবিও করে ইসলামাবাদ।

ভারতে পাকিস্তানের দূতাবাসের কর্মীর চরবৃত্তি ঘটনা এই প্রথম নয়। এর আগে ২০১৬ সালে পাকিস্তান দূতাবাসের এক ভিসা অফিসারের বিরুদ্ধে ভারতে চরবৃত্তির অভিযোগ ওঠে।

মিলিটারি ইন্টেলিজেন্স, আইবি এবং দিল্লি পুলিশের যৌথ তদন্তে হাতেনাতে ধরা পড়ে ওই দুই কর্মী। পাকিস্তান দূতাবাসের ২ কর্মীকে দেশে ফিরে যেতে ২৪ ঘণ্টা সময় দেয় সরকার।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও