নয়াদিল্লি: দু’দিনের ভারত সফরে আসছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। বন্ধু নরেন্দ্র মোদীর রাজ্য হয়ে দিল্লিতে পৌঁছবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। এই সফর ঘিরে আড়ম্বরপূর্ণ আয়োজনে মেতে উঠেছে কেন্দ্রীয় সরকার। তাই কেন্দ্রকে সরাসরি কটাক্ষ ছুঁড়ে কংগ্রেস নেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরী প্রশ্ন তুলেছেন, ‘ট্রাম্প কি ভগবান’?

সংবাদসংস্থা এএনআই-কে কংগ্রেস নেতা জানিয়েছেন, “ট্রাম্প কি ভগবান নাকি যে ৭০ লাখ মানুষকে জমায়েত হয়ে তাঁকে অভ্যর্থনা জানাতে হবে। ট্রাম্প নিজের স্বার্থের জন্য ভারতে আসছেন। অন্যদিকে ভারতের সঙ্গে তিনি কোনও বাণিজ্যিক চুক্তি করছেন না। আমেরিকার লাভ দেখতেই ট্রাম্প ভারতে এসেছেন তবে এ নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই যে ভারতীয়দের কথা ভেবে তিনি এই দেশে আসছেন না”।

ফেব্রুয়ারির ২৪-২৫ তারিখ প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প দুদিনের ভারত সফরে আসছেন। প্রেসিডেন্ট হওয়ার পরে এই প্রথমবার ভারতে আসছেন ট্রাম্প।

সফরের প্রথমদিনে তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে সাক্ষাতের পর তাঁর রাজ্য অর্থাৎ গুজরাতে একতি রোড-শো’তে অংশগ্রহণ করবেন। পাশাপাশি তিনি আহমেদাবাদে ‘নমস্তে ট্রাম্প’ নামের অনুষ্ঠানে ভারতীয়দের জনগণের উদ্দেশে বক্তব্য রাখবেন। এই প্রথমবার কোনও মার্কিন প্রেসিডেন্ট মহাত্মা গান্ধীর আশ্রম অর্থাৎ সবরমতি আশ্রমে যাবেন।

এদিন অধীররঞ্জন চৌধুরি ২৬/১১ ইস্যুতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পিয়ুস গয়ালকে কটাক্ষ করে বলেছেন, “হিন্দু টেরর শব্দটি যখন এসেছে তখন প্রেক্ষাপট অন্য ছিল। মক্কা মসজিদ বিস্ফোরণ হয়েছিল যেখানে প্রজ্ঞা ঠাকুর সহ অনেকে গ্রেফতার হয়েছিল। সন্ত্রাসীরা ছদ্মবেশ নেয়। হামলা চালাতে কখনও তাঁদের আসল পরিচয় ব্যবহার করে না”।

গয়াল বলেছিলেন, “কংগ্রেস হিন্দু টেরর পোস্ট ২৬/১১-এর ভুল বগি তুলে ধরতে চেষ্টা করেছে”। এই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতেই ওঢীড় রঞ্জন চৌধুরী এই মন্তব্য করেছেন।

তিনি মনে করিয়ে দেন যে, ইউপিএ আমলেই হামলার সব তথ্য প্রকাশ্যে আসে এবং পরে আজমল কাসবকে ফাঁসি দেওয়া হয়।