লন্ডন: লন্ডন ব্রিজে ছুরি নিয়ে সন্ত্রাসের দায় স্বীকার করল নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট(আইসিস)। শুক্রবার লন্ডনের বুকে এই হামলায় দুই জন সাধারণ মানুষের মৃত্যু হয়। শনিবার এই হামলার দায় স্বীকার করে হামলাকারী উসমান খানকে ‘যোদ্ধা’ বলেছে এই জঙ্গি সংগঠন।

শুক্রবার দুপুরে লন্ডন ব্রিজের কাছে জনবহুল এলাকায় এমন দৃশ্যে আতঙ্ক ছড়াল শহরে। ওই ঘটনায় পুলিশের গুলিতে নিহত এক। সেই সঙ্গে এক জনকে আটক করা হয়েছে।

মেট্রোপলিটন পুলিশ সূত্রে খবর, স্থানীয় সময় ১টা ৫৮ মিনিট নাগাদ লন্ডন ব্রিজের উত্তর দিকে ওই ঘটনা ঘটে। প্রাথমিক ভাবে এতে সন্ত্রাসবাদীরা জড়িত নেই বললেও একে সেই সংক্রান্ত হামলা বলেই মনে করছে পুলিশ। ঘটনার পরই লন্ডন ব্রিজ এলাকা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

ঘটনার এক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, ওই দিন দুপুরে লন্ডন ব্রিজের উত্তর দিকে এক দলের মধ্যে মারপিট হচ্ছিল। সেখান থেকেই পর পর দু’টো গুলির শব্দ শোনেন তিনি। এর পর এক জনকে মাটিতে লুটিয়ে পড়তে দেখেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় মেট্রোপলিটন পুলিশের কর্মীরা। গোটা এলাকা ঘিরে ফেলেন তাঁরা। জনবহুল ওই এলাকায় বহু ব্যাঙ্ক, অফিস, রেস্তরাঁ রয়েছে। এলাকার মানুষজন ওই বিল্ডিংগুলোতে আটকে পড়েন। ওই এলাকা দিয়ে যাতায়াতকারী বাসযাত্রীরা জানিয়েছেন, পুলিশ বাহিনী ওই দলটিকে ঘিরে রয়েছে এমন দৃশ্য দেখেছেন তাঁরা।

এই ঘটনায় পুলিশি তৎপরতার প্রশংসা করেন ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। সেই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, লন্ডন ব্রিজে হামলার ঘটনার প্রতিটি আপডেটই সম্পর্কে ওয়াকিবহাল রয়েছেন।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও