বর্ধমান: বুধবার গ্রেফতার করা হল বালি পাচার চক্রের সঙ্গে জড়িত কয়েকজনকে। পুলিশ সূত্রে খবর, আগাম খবরের ভিত্তিতে বুধবার পান্ডবেশ্বরের অজয়চরে হানা দেয় সেচ দফতরের কর্মীরা। সঙ্গে ছিল পুলিশ। সেই সময়ই ছয়টি বালি ভরতি ট্রাক আটক করা হয়। দুটি ব্রিজের মধ্যবর্তী অঞ্চল থেকে বালি তুলে লরিতে ভরছিল তারা। মনে করা হচ্ছে এই ট্রাকগুলির মাধ্যমেই ওই অঞ্চলে বালি পাচার চক্র সক্রিয় ছিল।

স্থানীয় সূত্রে খবর, অজয়চরে দীর্ঘদিন থেকেই বালি মাফিয়াদের দৌরাত্ব চলছে। বালি পাচারের সঙ্গে রয়েছে প্রোমোটারি ব্যবসা। কিছুদিন আগেই দুই বালিপাচারকারী গোষ্ঠীর লড়াইয়ে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এই অঞ্চল। তবে ট্রাক ও ট্রাকের চালককে আটক করা গলেও বালি পাচার চক্রের মূল মাথারা পালিয়ে গিয়েছে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.