নয়াদিল্লি: দেশের সরকারী চাকরির ক্ষেত্রে ভারতীয় রেল অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা বরাবর নিয়ে এসেছে। তা ছাড়া আইআরসিটিসি তাদের অনলাইন প্লাটফর্মের সাহায্যে বরাবর মানুষের ট্রেনের টিকিট কাটার ক্ষেত্রে সুবিধা দিয়ে এসেছে। কেবলমাত্র টিকিট নয় তার সঙ্গে নানা ধরনের সুবিধাও দিয়ে থাকে আইআরসিটিসি।

ভারতীয় রেলের ই টিকিট মোট সংরক্ষিত টিকিটের ৫৫ শতাংশ শেয়ার নিজেদের দখলে । যা চাকরির ক্ষেত্রে ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ। যদি কোন ব্যক্তি আইআরসিটিসি অনুমোদিত টিকিট বুকিং এজেন্ট হন তাহলে প্রতিমাসে প্রায় ৮০ হাজার টাকার কাছাকাছি রোজগার করতে পারবেন।

অনুমোদিত আইআরসিটিসি এজেন্ট বিভিন্ন ধরনের টিকিট( তৎকাল, আরএসি, ওয়েটিং) কাটার অনুমতি পেয়ে থাকেন। আর এই সকল টিকিটের উপরে আকর্ষণীয় হারে কমিশন পেয়ে থাকেন। এছাড়াও আইআরসিটিসি এজেন্ট আনুষঙ্গিক বিভিন্ন ধরনের সুবিধার সঙ্গে সঙ্গে প্রমাণস্বরূপ লাইসেন্সও পেয়ে থাকেন। এই এজেন্টদের নিজস্ব অনলাইন অ্যাকাউন্ট দেওয়া হয় যার সাহায্যে তারা দেশীয় এবং আন্তর্জাতিক বিমানের টিকিট কাটতে পারেন। এছাড়া বাস, হোটেল বুকিং, ঘুরতে যাওয়ার প্যাকেজ বুক করতে পারেন।

কিভাবে হতে পারেন আইআরসিটিসি এজেন্ট?

আইআরসিটিসি এজেন্ট হতে গেলে যারা আগ্রহী তাদের প্রিন্সিপ্যাল সার্ভিস প্রোভাইডারে সাইন ইন করতে হবে। আইআরসিটিসির এই প্রিন্সিপ্যাল সার্ভিস প্রোভাইডারের নাম ওয়েব পোর্টালে দেওয়া রয়েছে। আর এই টিকিট বেচে আপনি বড় সড় আয় করতে পারেন৷ দু ভাবে এই এজেন্সি নেওয়া যায়। প্রথম প্ল্যান অনুযায়ী এক বছরের জন্য মাত্র ৩,৯৯৯ টাকা দিতে হয় আর দুই বছরের জন্য ৬,৯৯৯ টাকা জমা করতে হয়। আর তারপরে কেউ যদি প্রতিমাসে ১০০ টি টিকিট বুক করেন তাহলে প্রতি টিকিট বাবদ ১০ টাকা করে পাবেন। ১০১-৩০০ মধ্যে থাকলে টিকিট বাবদ ৮ টাকা করে পাবেন। আর ৩০০ বেশী টিকিট বুক করলে এই চার্জ হবে ৫ টাকা প্রতি টিকিট। এসি ক্লাসের টিকিট কাটার ক্ষেত্রে টিকিট প্রতি ৪০ টাকা করে কমিশন পাবেন।