নয়াদিল্লি: ইরান-আমেরিকা চাপ ক্রমশ বাড়ছে, এরই মাঝে তিন দিনের সফরে ভারতে আসছেন ইরানের বিদেশমন্ত্রী জাভেদ জারিফ। মঙ্গলবার জারিফ দিল্লিতে এসে পৌঁছবেন।

বুধবার জাভেদ জারিফ দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দেখা করবেন। রাইসিনা ডায়লগএর পাশাপাশি তাঁদের দেখা হবে বলেই মনে করা হচ্ছে, যা ভারতের বিদেশমন্ত্রকের একটি বার্ষিক সম্মেলন।

বিদেশমন্ত্রী জয়শঙ্কর জাভেদ জারিফের সঙ্গে বৃহস্পতিবার সকালের খাবার সহ টেবিলে মুখোমুখি কথা হবে বলেই জানা গিয়েছে।

মনে করা হচ্ছে, ইরান-আমেরিকা সম্পর্কে চাপ কমাতে এদিন কথা হবে বলেই মনে করা হচ্ছে। ইরানি কম্যান্ডার কাসেম সোলেমানির মৃত্যুতে এই দুই দেশের সম্পর্কে টান পরেছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে জাভেদ জারিফ মুম্বইয়ের উদ্দেশে রওনা হবেন। সেখানে তিনি কিছু ব্যসসায়ীদের সঙ্গে দেখা করবেন। শুক্রবার তাঁর ভারত সফর শেষ হবে বলেই বিদেশমন্ত্রক সূত্রে জানা গিয়েছে।

কাসেম সোলামানির মৃত্যুতে এই মুহূর্তে ইরানের তরফে ভারত সফর আরও গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। ভারত প্রথম থেকেই ইরান-আমেরিকা সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে তৎপর হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে ভারত টানা ইরান, সংযুক্ত আরব আমিরশাহী, ওমান এবং কাতারের সঙ্গে যোগাযোগ রেখেছে।

জানুযারীর ৩ তারিখ ইরানিয়ান কম্যান্ডার কাসেম সোলেমানির ড্রোন হামলায় মৃত্যু হয়েছে। ঠিক এরপরেই ইরান আমেরিকার দুটি ঘাঁটিতে পরপর ব্যালিস্টিক মিশাইল ছুঁড়ে আক্রমণ চালিয়েছে।

সোলেমানির মৃত্যুতে ইরান-আমেরিকা সম্পর্কে নাটকীয় মোড় এনেছে। ভারত এই অঞ্চলের বিশেষ আগ্রহ রাখে যেহেতু শক্তি এবং সুরক্ষার অনেকটাই এই গালফ অঞ্চল থেকেই পাওয়া যায়।