তেহরানঃ  নিখুঁতভাবে লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানার ক্ষেত্রে তার দেশে নির্মিত ক্ষেপণাস্ত্রগুলো অতুলনীয়। এমনটাই মন্তব্য করলেন ইরানের সশস্ত্র বাহিনীর চিফস অব স্টাফের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মোহাম্মাদ বাকেরি। সম্প্রতি রাজধানী তেহরানের অদূরবর্তী কোম নগরীতে এক অনুষ্ঠানে এমনটাই মন্তব্য করেন।

জেনারেল বাকেরি বলেন, ইরানে নির্মিত ক্ষেপণাস্ত্র ‘খোররামশাহর’ পরীক্ষা করে দেখা গিয়েছে, এটি এক হাজার ৩০০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে লক্ষ্যবস্তুর এক মিটারের মধ্যে আঘাত হেনেছে। বিশ্বে এখন পর্যন্ত আর কোনও ক্ষেপণাস্ত্রকে এতটা নিখুঁতভাবে লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে দেখা যায়নি বলে তিনি মন্তব্য করেন।

তিনি দক্ষিণ-পূর্ব ইরানে গত বুধবারের ভয়াবহ জঙ্গি হামলার কথা উল্লেখ করে ইরানের সেনাপ্রধান বলেন, এই ধরনের হামলার পুনরাবৃত্তি রোধ এবং সেইসঙ্গে দেশের নিরাপত্তা টেকসই করার লক্ষ্যে ওই হামলার হোতাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার যথাযথ পরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে।

গত ‌‌১৩ ফেব্রুয়ারি ইরানের সিস্তান-বালুচিস্তান প্রদেশের একটি মহাসড়কে ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর জওয়ানদের কনভয়ের একটি বাসে ভয়াবহ গাড়িবোমা হামলায় ২৭ জন নিহত ও ১৩ জন আহত হন। জঙ্গি গোষ্ঠী জেইশুজ জুলুম এই হামলার দায়িত্ব স্বীকার করেছে। শুধু তাই নয়, এই ঘটনার পিছনে পাকিস্তানের মদত রয়েছে বলে ইতিমধ্যে সুর চড়িয়েছে ইরান। কারণ, এই আত্মঘাতী জঙ্গিদের সঙ্গে এক পাকিস্তানী নাগরিকেরও খোঁজ পাওয়া গিয়েছে।