নাইটদের হারিয়ে জয়ের হ্যাটট্রিক সিএসকে’র৷ ২২০ রান তাড়া করে ২০২ রানে অল-আউট হয়ে গেল কেকেআর৷ ১৯ রানে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে হারিয়ে পয়েন্ট টেবলে এক নম্বরে উঠে এলে চেন্নাই সুপার কিংস৷ প্রথম ম্যাচে দিল্লি ক্যাপিটালসের কাছে হারলেও পরের তিনটি ম্যাচ জিতে ছন্দে ফিরল তিনবারের চ্যাম্পিয়নরা৷ এদিন ব্যাট ও বলে নাইটদের টেক্কা দিল ধোনি অ্যান্ড কোং৷ দুরন্ত ইনিংস খেলেও দলকে জেতাতে পারলেন না কামিন্স৷ শেষ পর্যন্ত ৩৪ বলে ৬৬ রানে অপরাজিত থাকলেন তিনি৷ ইনিংসে ছ’টি ছয় ও চারটি বাউন্ডারি মারেন কামিন্স৷

২০ ওভারের প্রথম বলেই রান-আউট কৃষ্ণা৷ সেই সঙ্গে শেষ নাইটদের ইনিংস৷ প্রথম ম্যাচ জিতলেও হারের হ্যাটট্রিক নাইটদের৷ 

নাইটদের জয়ের জন্য দরকার ৬ বলে ২০

দুর্দান্ত হাফ-সেঞ্চুরি কামিন্সের৷ মাত্র ২৩ বলে হাফ-সেঞ্চুরি করলেন নাইটদের অজি অল-রাউন্ডার৷

নাইটদের জয়ের জন্য দরকার ১৮ বলে ৪০

কেকেআর ১৮০/৮

স্ট্র্যাটেজিক টাইম-আউটের পরের ওভারেই আউট নাগোরকোটি৷

১৬তম ওভারে কারেনকে চারটি ছয় ও একটি বাউন্ডারি-সহ ৩০ রান নিলেন কামিন্স৷ শেষ পাঁচ ওভারে দু’ উইকেট হারিয়ে ৬৫ রান তুলেছে কেকেআর৷

১৬ ওভার শেষে কেকেআর ১৭৬/৭

১৫ ওভার শেষে কেকেআর ১৪৬/৭

কার্তিক আউট..৷ ৪০ রান করে এনগিদির শিকার হন তিনি৷ ২৪ বলের ইনিংসে দু’টি ছয় ও চারটি বাউন্ডারি মারেন কার্তিক৷

১৩ ওভার শেষে কেকেআর ১২৭/৬

১২ ওভার শেষে কেকেআর ১২৩/৬৷ ক্রিজে কার্তিক ও কামিন্স৷

রাসেল আউট..৷ হাফ-সেঞ্চুরির করার পরের বলেই আউট হলেন তিনি৷ স্যাম কারেনের বলে বোল্ড হয়ে ডাগ-আউটে ফেরেন রাসেল৷ সেই সঙ্গে নাইটদের আশা শেষ৷

১১ ওভার শেষে কেকেআর ১১১/৫৷ দুর্দান্ত রাসেল৷ মাত্র ২১ বলে হাফ-সেঞ্চুরি করলেন তিনি৷ ৬টি ছয় ও তিনটি বাউন্ডারি মারেন তিনি৷

১১ ওভারের প্রথম বলেই সেঞ্চুরি করল কেকেআর৷ জাদেজাকে চার মেরে একশো রান পূর্ণ করলেন কার্তিক৷

১০ ওভার শেষে কেকেআর ৯৭/৫৷ এই ওভারের শার্দুলকে ২৪ রান নেন রাসেল৷ তিনটি ছয় ও একটি বাউন্ডারি মারেন তিনি৷

পরের দু’টি বল ওয়াইড করলেন ঠাকুর৷

১০ ওভারের প্রথম বলেই শার্দুল ঠাকুরকে ছক্কা হাঁকালেন রাসেল৷

৯ ওভার শেষে কেকেআর ৭৩/৫

এই অবস্থায় দলকে জিতিয়েছিলেন রাসেল৷ ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়র লিগে ৪১ রানে পাঁচ উইকেট পড়ে যাওয়ার পর ২২৩ রান তাড়া করে দলকে জিতিয়েছিলেন রাসেল৷

৮ ওভার শেষে কেকেআর ৬৬/৫৷ রাসেল ২৩ ও কার্তিক ১২ রানে ক্রিজে৷

৭ ওভার শেষে কেকেআর ৫৩/৫

সপ্তম ওভারে পঞ্চাশ রানের গণ্ডি টপকাল কেকেআর৷

ক্রিজে রাসেল ও কার্তিক৷

৬ ওভার শেষে কেকেআর ৪৫/৫

বিধ্বংসী দীপক চাহার৷ ৩ ওভারে মাত্র ১৬ রান দিয়ে চার উইকেট নিলেন সিএসকে-র এই ডানহাতি পেসার৷

ত্রিপাঠি আউট…৷ ৯ বলে মাত্র ৮ রান করেন তিনি৷ ২২১ রান তাড়া করতে নেমে মাত্র ৩১ রানে পাঁচ উইকেট হারায় কলকাতা৷ 

৫ ওভার শেষে কেকেআর ৩১/৪

নারিন আউট…৷

মর্গ্যান আউট, কেকেআর ২৭/৩৷ ৭ রান করে দীপক চাহারের শিকার নাইট অধিনায়ক৷

৩ ওভার শেষে কেকেআর ১৭/২

রানা আউট…৷ ৯ রান করে আউট হলেন নাইট ওপেনার৷

দ্বিতীয় ওভার শেষে কেকেআর ১৪/১

দ্বিতীয় ওভারের প্রথম দু’টি ডেলিভারি বাউন্ডারি মারলেন রানা৷

প্রথম ওভার শেষে কেকেআর ৫/১

রানার সঙ্গে ক্রিজে রাহুল ত্রিপাঠি৷

গিল আউট, কেকেআর ১/১৷ প্রথম বলেই ডাগ-আউটে ফিরলেন গিল৷ তাঁকে তুলে নিলে নাইটদের বড় ধাক্কা দিলেন চাহার৷

ক্রিজে নাইটদের দুই ওপেনার নীতিশ রানা ও শুভমন গিল৷

চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে ২২০ রান তাড়া করতে নামল কলকাতা নাইট রাইডার্স৷ যারা মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে দেড়শো রান তাড়া করে ম্যাচ জিততে পারেনি৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.