কেকেআরকে ৫৫ রানে হারাল শ্রেয়সের দিল্লি ডেয়ারডেভিলস৷

ডেয়ারডেভিলসের ২২০ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ১৬৪ রানে গুটিয়ে গেল নাইটরা৷ এই হারের ফলে সাত ম্যাচে চারটেতে হারল কেকেআর৷ তিন ম্যাচ জিতে ছয় পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকায় চার নম্বরে রইল শাহরুখের ফ্র্যাঞ্চাইজি৷ অন্যদিকে সাত ম্যাচে দুটিতে জয় দিল্লির৷ চার পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকায় একধাপ উঠল ডেয়ারডেভিলস৷ এই মুহূর্তে তারা ৭ নম্বরে রয়েছে৷

ব্যাটে বলে দুই বিভাগেই এদিন নাইটদের মাত দিয়েছে দিল্লি৷ শ্রেয়সের ৯৩ রানের দুর্দান্ত ইনিংস থেকে শুরু করে ট্রেন্ট বোল্ট-আবেশ খানদের দুটি করে উইকেট তুলে নেওয়া, দলগত সাফল্যেই এদিন ‘নাইট বধ’ করল শ্রেয়স-পন্থরা৷ নাইটদের হয়ে রাসেল ৪৪ আর শুভমনের ৩৭ ছাড়া কেউই সম্মানজনক রান পাননি৷ সুনীল নারিন ৯ বলে ২৬ রানের ক্যামিও ইনিংস খেলেন৷ লিন-দীনেশ, উথাপ্পারা হতাশ করলেন৷ নাইটদের বোলিংও চিন্তায় বাড়ালো বলা চলে৷

১৬ ওভার শেষে কেকেআর- ১৪১/৭,শূন্য রানে বোল্ড হয়ে ফিরলেন শিভম মাভি৷ অনূর্ধ্ব-১৭ এই ক্রিকেটারকে বোল্ড করলেন অমিত মিশ্র৷

রান আউট শুভমন গিল! ২৯ বলে ৩৭ রানের লড়াকু ইনিংস খেলে আউট হয়ে ডাগআউটে ফিরলেন গিল৷ শুভমনকে রান আউট করলেন দিল্লি অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ার৷

১৫ ওভার শেষে নাইটব্রিগেড- ১৪০/৫

রাসেল-শুভমনের ব্যাটে লড়াইয়ে ফিরল কেকেআর৷ ষষ্ঠ উইকেটে ২৬ বলে অর্ধশতরান পার্টনারশিপ দুই ডানহাতির৷ ব্যাট হাতে নাইটদের ভরসা দিচ্ছেন রাসেল৷ ৪৩রানে ক্রিজে রয়েছেন ক্যারিবিয়ন অলরাউন্ডার৷ ২৮বলে ৩৭ রান করে তাঁকে যোগ্য সংগত দিচ্ছেন শুভমন৷ শেষ পাঁচ ওভারে নাইটদের প্রয়োজন ৮০ রান৷

১০ ওভার শেষে কেকেআর ৮৩/৫, অমিত মিশ্র’র বলে বোল্টের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হয়ে ফিরলেন দীনেশ৷ নাইট অধিনায়কের সংগ্রহ মাত্র ১৮রান৷

নাইটদেরব্রিগেডের অর্ধেক টিম ডাগআউটে ফিরে গিয়েছে৷

৮ ওভার শেষে কেকেআর-৬৬/৪, শুভমন গিলকে নিয়ে দিল্লির বোলিংয়ের বিরুদ্ধে লড়াই করছেন নাইট অধিনায়ক দীনেশ৷

৬ ওভার শেষে কেকেআর- ৫১/৪

৬ ওভারের শুরুতেই আবেশ খানের বাউন্স সামলাতে না পেরে উইকেট ছুঁড়ে দিয়ে এলেন নীতিশ রানা৷ ৭ বলে ৮ রান করে ডাগআউটে ফিরলেন রানা৷

৫ ওভার শেষে কেকেআর- ৪৬/৩

ব্যাটে বলে সব বিভাগেই চোখ ধাঁধানো পারফরম্যান্স দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের৷ পুরো দলটাই যেন শ্রেয়স আইয়ারের নেতৃত্বে পালটে গিয়েছে৷

৩ ওভার শেষে নাইট রাইডার্স -৩৩/৩৷  ৯ বলে ২৬ রান করে ডাগআউটে ফেরেন নারিন৷

৩ ওভারের শুরুতেই উইকেট ছুঁড়ে দিয়ে এলেন রবিন উথাপ্পা৷

সুনীল-লিন জুটি শুরুটা ভালো করলেও ৫রানে আউট হয়ে ডাগআউটে ফিরলেন ক্রিস লিন৷ নাইটদের প্রথম উইকেটের পতন৷