নয়াদিল্লি: সবকিছু পরিকল্পনামাফিক চললে বদলে যেতে পারে ২০২০ আইপিএল ফাইনালের ভেন্যু। ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামের পরিবর্তে নবরূপে নির্মিত গুজরাতের সর্দার প্যাটেল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হতে পারে আসন্ন আইপিএলের খেতাব নির্ণায়ক ম্যাচ।

প্রাথমিকভাবে এশিয়া একাদশ বনাম বিশ্ব একাদশের ম্যাচ দিয়ে মার্চে এক লক্ষ দশ হাজার আসন আসনবিশিষ্ট বিস্বের সর্ববৃহৎ এই স্টেডিয়াম উদ্বোধনের কথা ছিল। কিন্তু ওই সময়ের মধ্যে স্টেডিয়ামের বাকি কাজ শেষ হওয়া সম্ভব নয়। তাই বাধ্য হয়ে এশিয়া বনাম বিশ্ব একাদশের ম্যাচ আয়োজনের দায়িত্ব থেকে সরে আসে গুজরাত ক্রিকেট অ্যাসসিয়েশন। পরিবর্তে আগামী ২৯মে আইপিএল ফাইনাল দিয়ে নবনির্মিত সর্দার প্যাটেল স্টেডিয়াম উদ্বোধনের প্রস্তাব আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের কাছে পেশ করে তারা।

সোমবার আইপিএলের গভর্নিং কাউন্সিলের বৈঠকে আলোচনার পর বিষয়টিয়ে কার্যত সিলমোহর পড়ে গিয়েছে বলে সূত্রের খবর। সূত্রের খবর, আমেদাবাদের নয়া এই স্টেডিয়ামে আইপিএল ফাইনাল আয়োজনের বিষয়টি মোটামুটি নিশ্চিত। তবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গৃহীত হবে ফেব্রুয়ারিতেই। উল্লেখ্য, দিনকয়েক আগেই আইসিসি নবরূপে নির্মীয়মান গুজরাতের সর্দার প্যাটেল স্টেডিয়ামের একটি ছবি পোস্ট করে, ক্যাপশন হিসেবে লেখে, ‘সম্পূর্ণ হওয়ার পর বিশ্বের সর্ববৃহৎ ক্রিকেট স্টেডিয়াম রূপে আত্মপ্রকাশ করবে এটি। আসনসংখ্যা ১,১০০০।’

তবে আইপিএলের পরম্পরা অনুযায়ী গত মরশুমের চ্যাম্পিইয়ন ফ্র্যাঞ্চাইজির ঘরের মাঠেই অনুষ্ঠিত হয় আইপিএল ফাইনা। সেক্ষেত্রে আমেদাবাদে আসন্ন আইপিএলের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হলে বদলে যাবে পরম্পরা। এ প্রসঙ্গে বিসিসিআই’য়ের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, ‘আইপিলের নক-আউট ম্যাচগুলি সম্পূর্নরূপে বিসিসিআই’য়ের হেফাজতে থাকে। এরি ম্যাচগুলিতে যা রেভিনিউ উপার্জিত হয় তা সম্পূর্ণ বোর্ডের। আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর এই বিষয়ে কিছু করার নেই। তবে উদ্বোধনী ম্যাচ অবশ্যই গতবারের বিজয়ী দলের হোমগ্রাউন্ডে খেলা হবে।’

আগামী ২৯ মার্চ থেকে শুরু হতে চলেছে আইপিএলের ত্রয়োদশ সংস্করণ। চলবে ২৪মে পর্যন্ত। উদ্বোধনী ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে।