মুম্বই: আইপিএলের ভবিষ্যত ঠিক কী? অনুরাগীদের মতোই এ সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা নেই বোর্ড কিংবা ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর। মারণ ভাইরাস কোভিড ১৯ যেভাবে থাবা বসিয়েছে খেলার মাঠে, তাতে বিশ বাঁও জলে আইপিএলের ত্রয়োদশ সংস্করণ। ১৫ এপ্রিলের আগে সম্ভব নয় কোনওভাবেই। তাহলে কবে অনুষ্ঠিত হবে এবারের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ, আদৌ কী সম্ভব।

আইপিএলের ভবিষ্যত নির্ধারণ করতে আগামী মঙ্গলবার ফ্রায়াঞ্চাইজিগুলোর সঙ্গে কনফারেন্স কলে বৈঠক সারবে বিসিসিআই। বিসিসিআই সূত্রে সংবাদসংস্থা এএনআই’র কাছে খবর তেমনটাই। উল্লেখ্য, চলতি মাসের ২৯ তারিখ আইপিএলের ত্রয়োদশ সংস্করণ শুরু হওয়ার কথা থাকলেও করোনা সংক্রমণ প্রসার লাভ করায় তা স্থগিত হয়ে যায়। গত ১৩ মার্চ বিসিসিআই জানিয়ে দেয় ১৫এপ্রিলের আগে আইপিএল আয়োজন সম্ভব নয়। এমনকি করোনা আতঙ্কে বিসিসিআই তাদের কর্মীদেরও ওয়ার্ক ফ্রম হোম চালু করে দেয়।

সূত্রের খবর, গত ১৪ মার্চ মুম্বইয়ে বোর্ডের হেডকোয়ার্টারে বিসিসিআই-ফ্র্যাঞ্চাইজি যেমন বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছিল, আগামী মঙ্গলবারেও কনফারেন্স কলে তেমনই দু’পক্ষের বৈঠক হবে। যেখানে ভাগ্য নির্ধারিত হবে আইপিএলের। পাশাপাশি বৃহস্পতিবার ক্রীড়ামন্ত্রী কিরণ রিজিজু জানিয়েছিলেন উৎকণ্ঠার ১৫ এপ্রিল না কাটলে কোনওরকম সিদ্ধান্ত নেওয়া সম্ভব নয় ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ নিয়ে। সেকথাও মাথায় রাখা হবে।

উল্লেখ্য, ১৫ এপ্রিল অবধি স্থগিত হয়ে যাওয়ায় আপাতত শিবির বন্ধ সমস্ত ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলির। বোর্ডের পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া অবধি কোনওরকম প্রস্তুতি শিবির চালিয়ে যাওয়া থেকে নিজেদের বিরত রেখেছে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স, চেন্নাই সুপার কিংস, রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর, কেকেআর সহ সমস্ত ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো।

বিশ্বব্যাপী নোভেল করোনা ভাইরাসে প্রাণ হারিয়েছেন ১০ হাজারেরও বেশি মানুষ। ভারতেও প্রাণ হারিয়েছেন ৫ জন। শনিবার মধ্যরাত অবধি আক্রান্তের সংখ্যা ২৭১ জন।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।