লাহোর: পাক নির্বাচক প্রধানের পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিলেন ইনজামাম উল হক৷ প্রাক্তন অধিনায়কের সঙ্গে পাক বোর্ডের চুক্তি শেষ হচ্ছে আগামী ৩১ জুলাই৷ তার পর আর চুক্তি নবীকরণে আগ্রাহী নন ইনজি৷ নিজের সিদ্ধান্তের কথা বিজ্ঞপ্তি মারফৎ জানিয়ে দিলেন ইনজামাম নিজেই৷

২০১৬’র এপ্রিলে পাকিস্তানের নির্বাচক প্রধানের দায়িত্ব কাঁধে তুলে নেন ইনজামাম৷ তাঁর সময়েই ২০১৭ আইসিসি চ্যম্পিয়ন্স ট্রফির খেতাব ঘরে তোলে সরফরাজ আহমেদের নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান দল৷ সদ্য সমাপ্ত আইসিসি বিশ্বকাপের দল বেছে নেওয়াই ছিল ইনজামামের নেতৃত্বাধীন পাক নির্বাচক কমিটির শেষ অ্যাসাইনমেন্ট৷ বিশ্বকাপের জন্য বেছে নেওয়া পাকিস্তানের প্রাথমিক দল ও চূড়ান্ত স্কোয়াড নিয়ে বিতর্কও হয়৷ তবে শেষমেশ তা বড়সড় আকার নেয়নি৷ বিশ্বকাপে পাকিস্তান অল্পের জন্য সেমিফাইনালের টিকিট হাতছাড়া করে৷ শেষ পর্যন্ত পাঁচ নম্বরে থেকে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নেয়৷

বিশ্বকাপে পাকিস্তানের সার্বিক পারফরম্যান্স নিয়ে খুব একটা হতাশা দেখা যায়নি পাক ক্রিকেটমহলে৷ তবে টুর্নামেন্টের মাঝ পথেই কোচ ও নির্বাচক প্রধানের সঙ্গে পিসিবি চুক্তি নবীকরণ করতে চায় না বলে খবর রটে যায়৷ যার জেরে পিসিবি’কে এমন খবর ভিত্তিহীন বলে রীতিমতো বিজ্ঞপ্তি জারি করতে হয়৷ প্রাথমিকভাবে কোচ ও নির্বাচকপ্রধানের কাজে পাক বোর্ড খুশি বলে জানানো হলেও বাস্তবে অবশ্য তেমন ছবিই দেখা যেতে চলেছে৷ কোচ আর্থারকে ছেঁটে ফেলার পথে পাকিস্তান৷ এবার নির্বাচকপ্রধানের পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর কথা জানিয়ে দিলেন ইনজি৷

বিজ্ঞপ্তিতে ৪৯ বছর বয়সি ইনজামাম জানান, ‘তিন বছরেরও বেশি সময় পাকিস্তানের নির্বাচক কমিটির চেয়ারম্যানের পদে থাকার পর আমি চুক্তি নবীকরণ না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি৷ আসন্ন টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ, ২০২০ আইসিসি টি-২০ বিশ্বকাপ ও ২০২৩ আইসিসি বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে আমার মনে হয় এটাই সঠিক সময় সময় নতুন কাউকে নির্বাচক প্রধানের দায়িত্ব দেওয়ার, যে নতুন ভাবনা চিন্তার প্রয়োগ করতে পারবে৷’

ইনজামামের আমলেই ফকর জামান, হাসান আলি, ইমাম-উল-হক, মহম্মদ আব্বাস, শাদব খান, শাহীন শাহ আফ্রিদি, উসমান শিনওয়ারির মতো ক্রিকেটারদের আন্তর্জাতিক অভিষেক হয়৷ বাবর আজমের মতো তরুণ প্রতিভাও বিকশিত হয় ইনজিত তত্ত্বাবধানেই৷ তরুণ ক্রিকেটারদের এই পুল নিয়ে ইনজামাম জানান, ‘এি সব ক্রিকেটারদের পরিণত হয়ে ওঠা এবং আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আলাদা পিরচিতি তৈরি করতে দেখা অত্যন্ত আনন্দের৷ আমি নিশ্চিত এরাই ভবিষ্যতে পাকিস্তান ক্রিকেটকে অন্য উচ্চতায় তুলে নিয়ে যাবে৷’