মুম্বই: গত দুদিন ধরে শেয়ার বেচার প্রবণতা কাটিয়ে মঙ্গলবার ফের শেয়ার কেনায় মাতল দালাল স্ট্রিট। মার্কিন প্রশাসন বড় স্টিমুলাস প্যাকেজের দিকে ঢেলে দিচ্ছে , যার ফলে বাজারে ভালো পরিমাণে অর্থ ঢুকেছে।গত দুদিন বেশ কিছু নামকরা শেয়ারের দাম কমায় অনেকেই আকৃষ্ট হয় ওইসব শেয়ার কেনার দিকে।

বিএসই সেনসেক্স এদিন ৮৩৪.০২ পয়েন্ট বা ১.৭২ শতাংশ বেড়ে দিনের শেষে অবস্থান করছে ৪৯,৩৯৮.২৯ পয়েন্টে। গত চার মাসে এটাই সবচেয়ে ভালো দিন সূচকের উত্থানে পক্ষে।অন্যদিকে এনএসই নিফটি ২৩৯.৮৫ পয়েন্ট বা ১.৬৮ শতাংশ বেড়ে দিনের শেষে অবস্থান করছে ১৪,৫২১.১৫ পয়েন্টে।

এভাবে এদিন শেয়ার বাজারের উত্থানের ফলে লগ্নিকারীদের সম্পদ বেড়েছে ৩.৪২ লক্ষ কোটি টাকা। বিএসই নথিভূক্ত শেয়ারের বাজার মূল্য এই পরিমাণ বেড়ে গিয়ে দাঁড়িয়েছে ১৯৬.২০ লক্ষ কোটি টাকা।

ব্লু চিপ সংস্থাগুলির মধ্যে বাজাজ ফিনসার্ভ সবথেকে বেশি বেড়েছে ৬.৭৬ শতাংশ। বাজাজ ফিনান্স টাটা মোটরস হিন্দলকো সান ফার্মা আদানী পোর্ট, এইচডিএফসি এবং গ্রাসিম ইন্ডাস্ট্রিজ ভাল দাম বেড়েছে।

অন্যদিকে নিফটি কমায় সবথেকে বেশি আইটিসি ০.৩৬ শতাংশ। এছাড়া টেক মহিন্দ্রা ব্রিটানিয়া ইন্ডাস্ট্রিজ এবং মহিন্দ্র মহিন্দ্রর শেয়ারের দাম কমেছে। ‌

নিফটি মিডক্যাপ এবং স্মল ক্যাপ বেড়েছে যথাক্রমে শতাংশ ১.৭২ এবং ২.৩২ শতাংশ। এনএসইতে সবক্ষেত্রের সূচকই বেড়েছে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।