স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : সিএসসির গাফিলতি দুই দমকলকর্মীর মৃত্যু, রিডিং ছাড়া ইলেকট্রিক বিল পাঠানো, অত্যধিক বিদ্যুতের বিল আসার অভিযোগ নিয়ে আইএনটিউসি সেবাদলের পক্ষ থেকে বহুরূপী সহ কর্মীদের লাইট পেঁচিয়ে রাস্তায় নামা ও ইলেকট্রিক শক লাগার প্রতীকী প্রতিবাদ জানানো হল।

তাঁদের আরও দাবী, তিন মাস ইলেকট্রিক বিল আসা বন্ধ হোক বা ৫০ শতাংশ ছাড় দেওয়া হোক। কাঠগড়ায় খাড়া করাচ্ছে মমতা ও মোদি সরকারকেও। এদিন সকাল এগারোটা নাগাদ তালতলার কাছে যশোদা মিষ্টান্ন ভান্ডারের সামনে রাস্তায় এই বিক্ষোভ দেখান তাঁরা।

এই প্রসঙ্গে আইএনটিউসি সেবাদলের সভাপতি প্রণব পাণ্ডে বলেন, ‘সিইএসসি’র গাফিলতির জন্য দুই দমকলকর্মীর মৃত্যু হয়েছে। তাই আমরা আজ পথে নেমেছি। ইলেকট্রনিক রিডিং ছাড়াই প্রচুর প্রচুর বিল আসছে প্রত্যেক গ্রাহকের বাড়িতে। এর দায় কি নেবে মুখ্যমন্ত্রী বা প্রধানমন্ত্রী? এই যে একের পর এক শক খাচ্ছে মানুষ তা বোঝানোর জন্য আমরা গায়ে ইলেলট্রিক লাগিয়ে প্রতীকী প্রতিবাদ করলাম।’

প্রথমে বেলুড়ে জিটি রোডে বিদ্যুতের তারের উপরে ভেঙে পড়েছিল গাছের ডাল। সেই গাছ কাটতে গিয়েই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হয় দমকলকর্মী সুকান্ত সিংহ রায়ের। এই ঘটনায় গাফিলতির অভিযোগ ওঠে সিইএসসি-র বিরুদ্ধে। দমকলের তরফ থেকে ৩০৪ ধারায় অনিচ্ছাকৃত খুনের মামলা দায়ের করা হয়।

দ্বিতীয় ঘটনাটি ঘটে টালিগঞ্জে। ফায়ার স্টেশনের দমকল আধিকারিক কুন্তল মুখোপাধ্যায় ব্রাউজার গাড়ি নিজে চালাতে যান। গাড়ি ব্যাকে নিয়ে যাওয়ার সময় তিনি ধাক্কা দেন একটি বিদ্যুতের খুঁটিতে। সরাসরি খুঁটিটি পড়ে ওই স্টেশনারই অক্সিলারি ফায়ার অপারেটর দেবনারায়ণ পালের মাথায়। ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV