নয়াদিল্লি: আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিল অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রক। দেশজুড়ে বেড়ে চলা করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধেই এই সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছে ডিজিসিএ। আপাতত দেশের আকাশে ৩১ জুলাই পর্যন্ত বিদেশের কোনও বিমান উড়বে না।

গোটা দেশে লাফিয়ে বাড়ছে নোভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী শুক্রবার বিকেল পর্যন্ত দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৬ লক্ষ ২৫ হাজার ৫৪৪।

করোনায় গোটা দেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৮ হাজার ২১৩। একদিনের নিরিখে দেশে সর্বোচ্চ সংক্রমণ হয়েছে বৃহস্পতিবার। প্রায় ২১ হাজার মানুষ নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ওই দিন।

দেশের করোনা পরিস্থিতির কথা বিচার করে আর কোনও ঝুঁকি নিতে চায় না কেন্দ্রীয় সরকার। এই পরিস্থিতিতে আপাতত দেশের আকাশে আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রক।

আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা বন্ধ রাখা হবে বলে জানিয়েছে ডিজিসিএ। করোনা সংক্রমণের জেরে ভারতে গত ২৩ মার্চ থেকে বন্ধ রাখা রয়েছে আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা।

এর আগে ২৬ জুন আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা নিয়ে আরও একটি বিবৃতি জারি করা হয়েছিল। সেই বিজ্ঞপ্তিতে দেশে ১৫ জুলাই পর্যন্ত আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত জানানো হয়েছিল।

তবে করোনার ক্রমবর্ধমান সংক্রমণে সেই সিদ্ধান্তও বদল হয়েছে। ১৫ জুলাই তেকে বাড়িয়ে এবার আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা বন্ধ রাখা হচ্ছে আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত।

তবে করোনা পরিস্থিতির আবহে নির্দিষ্ট কিছু রুটে আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা চালু রাখা নিয়েও চিন্তা-ভাবনা চালাচ্ছে ডিজিসিএ। জরুরি ক্ষেত্র বিশেষে কয়েকটি রুটে আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা চালু রাখার ভাবনা অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রকের।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ