ব্যাংকক: তার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ অব্যাহত থাকলেও থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী প্রাইয়ুথ চান-ওচা পদত্যাগের দাবি নাকচ করে দিয়েছেন। তিনি জানিয়ে দিয়েছেন, তার পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ হলেও তিনি ক্ষমতা ছাড়বেন না বরং প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন অব্যাহত রাখবেন।

থাইল্যান্ডে গত এক মাসের বেশি সময় ধরে গণবিক্ষোভ চলছে প্রাইয়ুথ ওচার পদত্যাগের দাবিতে । পাশাপাশি দেশটিতে রাজতন্ত্রের সংস্কারের দাবি করে বিক্ষোভের শামিল হয়েছে বিক্ষোভকারীরা।

এই প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার থাই সংসদে দেওয়া ভাষণে প্রাইয়ুথ বলেন, “আমি সমস্যার মধ্যে পালিয়ে যেতে পারব না। যখন দেশ নানা সমস্যার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে তখন আমি আমার দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়াব না।”

এই সময় সংসদে বিরোধীদলের সদস্যরা প্রাইয়ুথের বক্তব্যের বিরোধিতা করে বলেন, “রাজার প্রতি আনুগত্য প্রকাশের আড়ালে সত্য গোপন করে চলেছে। অবিলম্বে তা বন্ধ করে আপনি পদত্যাগ করুন। এদিকে, চলমান বিক্ষোভে নেতৃত্ব দেওয়া একজন নেতাও গতকালের সংসদ অধিবেশনকে মূল্যহীন বলে মন্তব্য করেছেন।

প্রায় ছয় বছর আগে প্রাইয়ুথ সামরিক ক্যু’র মাধ্যমে থাইল্যান্ডের ক্ষমতা দখল করেছিলেন। সংসদ অধিবেশনের সময়ে প্রাইয়ুথ বলেছেন, তিনি চলমান সংকট নিয়ে কথা বলতে আগ্রহী কিন্তু তিনি কোনও একক নেতা পাচ্ছেন না। বিক্ষোভকারীদের সবাইকেই তিনি ‘নেতা’ বলে মন্তব্য করেছেন।

স্বামীর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বস্ত্র ব্যবসাকে অন্যমাত্রা দিয়েছেন।'প্রশ্ন অনেকে'-এ মুখোমুখি দশভূজা স্বর্ণালী কাঞ্জিলাল I