নয়াদিল্লি: টাকা তোলার ক্ষেত্রে এবার আধার কার্ডকেই মাধ্যম হিসেবে তুলে ধরার পরিকল্পনা নিচ্ছে সরকার৷ সেজন্য ডেবিট ক্রেডিট কার্ডের বদলে আধার দিয়েই লেনদেন সম্ভব হবে৷ এজন্য সরকার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছে৷ সরকার কাজ শুরু করেছে।

সাধারণ ফোনের অ্যান্ড্রয়েট তৈরিতে যার ফলে দোকানদারেরা  ডেবিট অথবা ক্রেডিট কার্ডের পিন ও পাসওয়ার্ডের মাধ্যমে পেমেন্ট পেতে পারে৷ এক্ষেত্রে মোবাইল অ্যাপ্লিকেশেনের ফলে  হ্যান্ডসেট কাজ  করবে আধার মাধ্যমে পেমেন্ট্রের ক্ষেত্রে  ক্রেতার বায়োমেট্র্কি অথেনটিকেশন দেওয়ার জন্য৷

ইউআইডিএআই-এর চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার আগেই জানিয়ে ছিলেন, ইউআইডিএআই তার বায়োমেট্রিক অথেনটিকেশনের ক্ষমতা বাড়িয়ে ৪০ কোটি করছে৷ তাছাড়া মানুষের এই ধরনের লেনদেনের বিষয়ে সচেতনতা বাড়াতেও উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে বলেও তিনি জানান৷

ইতিমধ্যে ১.৩১ কোটি আধার সক্ষম বায়োমেট্রিক অথেনটিকেশন করা হয়েছে এবং এই ক্ষমতা ধীরে ধীরে বাড়ানো হচ্ছে৷  আধার এনেবেল পেমেন্ট সিস্টেম (এইপিএস) মারফত  জনসাধারণ তাদের ব্যাংকের সঙ্গে আধার যুক্ত করিয়ে ব্যালান্স জানা, নগদ জমা করা ও তোলা, ফান্ড ট্রান্সফার ইত্যাদি কাজ সেরে ফেলবেন৷

আাপতত এই এইপিএস-এর ক্ষমতা ১০ কোটি সেটাই বাড়িয়ে ৪০ কোটি করা হচ্ছে বলে জানান হয়েছে৷ এর ফলে দোকানে ডেবিট অথবা ক্রেডিট কার্ড ছাড়াই আধার নম্বর দিয়েই  এবং বায়োমেট্রিক অথেনটিকেশন দিয়ে পেমেন্ট সেরে ফেলা যাবে৷শুধু আধার নম্বরটি বলতে হবে এবং বায়োমেন্ট্রিক প্রমাণটি দিতে হবে৷