কলকাতা২৪x৭: বিশ্বের জনপ্রিয়তম ক্রিকেটারদের মধ্যে একজন হলেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি(MS Dhoni)। ২০০৭ থেকে ২০১৭ পর্যন্ত ৩৩২টি আন্তর্জাতিক ম্যাচে ভারতের নেতৃত্ব দিয়েছেন ক্যাপ্টেন কুল। সবকটি মেজর আইসিসি(ICC) ট্রফিজয়ী বিশ্বের একমাত্র অধিনায়ক হলেন তিনি। ২০০৭ টি-২০ বিশ্বকাপ, ২০১১ ওডিআই বিশ্বকাপ এবং ২০১৩ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিজয়ী ভারতীয় দলের অধিনায়ক ছিলেন মাহি। ভারতের সর্বকালের সেরা অধিনায়ক ধোনি গত বছরই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়েছেন। এখন শুধুমাত্র আইপিএলেই(IPL) খেলেন তিনি।

আইপিএলের ইতিহাসের সবচেয়ে ধনী ক্রিকেটার হলেন ক্যাপ্টেন কুল(Captain Cool)। তিনি এখনও পর্যন্ত সবকটি সংস্করণের আইপিএল মিলিয়ে ১৫২.৮৪ কোটি টাকা আয় করেছেন। তবে শুধুমাত্র আইপিএলই নয়, প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক বিশ্বের দ্বিতীয় সবচেয়ে ধনী ক্রিকেটারও বটে। তাঁর নেট ভ্যালু হল ভারতীয় মুদ্রায় ৮৪০ কোটি টাকা। তাই খুবই স্বাভাবিক তাঁর বাড়িতে বহু দামি দামি জিনিস সাজানো থাকবে। আজ মাহির বাড়ির গ্যারেজে কোন কোন লাক্সারি গাড়ি রয়েছে তা একটু জেনে নেওয়া যাক।

• পোরসে ৯১১ Porche 911
মহেন্দ্র সিং ধোনির লাক্সারি গাড়ির কালেকশনের সবচেয়ে বড় নামটি হল পোরসে ৯১১। একটি নামি সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, এই গাড়িটির মূল্য প্রায় ২.৫০ কোটি টাকা। পোরসে ৯১১ গাড়িটির একটি বিশেষত্ব হল, মাত্র ৪.৫ সেকেন্ডে এর গতি ১০০ কিমি/ঘণ্টা পর্যন্ত পৌঁছে যেতে পারে।

• ফেরারি ৫৯৯ জিটিও Ferrari 599 GTO
মাহির লাক্সারি গাড়ির কালেকশনে আরও একটি উল্লেখযোগ্য নাম হল ফেরারি ৫৯৯ জিটিও। এই গাড়িটির মূল্য প্রায় ১.৩৯ কোটি টাকা। ২০১১ বিশ্বকাপ(2011 Cricket World Cup) জয়ের পর এই গাড়িটি তৎকালীন ভারত অধিনায়ক ধোনি উপহারস্বরূপ পেয়েছিলেন। মাহির এই লাক্সারি গাড়িটির গতি মাত্র ৩.৫ সেকেন্ডে ১০০ কিমি/ঘণ্টা পর্যন্ত পৌঁছে যেতে পারে।

• অডি কিউ৭ Audi Q7
প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক ধোনির কাছে অডি কিউ৭ গাড়িটি রয়েছে। এই গাড়িটি মাহি বাদে বিরাট কোহলি(Virat Kohli), বিপাশা বসু(Bipasha Basu), দীপিকা পাড়ুকোন-সহ(Deepika Padukone) হাতেগোনা কয়েকজন ভারতীয় তারকার কাছে রয়েছে। একটি নামি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী, এই লাক্সারি গাড়িটির মূল্য প্রায় ৬৪ লাখ টাকা।

• পন্টিয়্যাক ফায়ারবার্ড ট্রান্স অ্যাম Pontiac Firebird Trans Am
ধোনি এই ক্ল্যাসিক গাড়িটি গত বছরই কিনেছিলেন। এর মূল্য প্রায় ৬৮ লাখ টাকা। ধোনির স্ত্রী সাক্ষী(Sakshi Dhoni) নিজের ইন্সটাগ্রামে গাড়িটির ছবি শেয়ার করে লিখেছিলেন, ‘বাড়িতে স্বাগত জানাই। তোমায় মিস করছি মাহি’। আমেরিকার জেনারেল মোটরস কোম্পানি(General Motors Company) ১৯৬৯ থেকে ২০০২ সাল পর্যন্ত পন্টিয়্যাক ফায়ার বার্ড ট্রান্স অ্যাম গাড়িটি বিক্রি করেছিল। জিকিউ’তে(GQ) প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী, মাহি গাড়িটির দ্বিতীয় জেনারেশনের একটি মডেল কিনেছেন।

• হামার এইচ২ Hummer H2
অতীতে রাঁচির রাস্তায় বহুবার এই লাক্সারি গাড়িটি চালিয়ে ধোনিকে ঘুরতে দেখা গিয়েছে। হামার এইচ২ গাড়িটির মূল্য প্রায় ৭২ লাখ টাকা। এটি বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী গাড়িগুলির মধ্যে একটি। ২০১৬ সালে নিউজিল্যান্ড যখন ভারতে সিরিজ খেলতে এসেছিল, তখন মাহিকে কিউয়িদের টিম বাসের সঙ্গে সঙ্গে এই গাড়িটি চালিয়ে যেতে দেখা গিয়েছিল। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ছবিতে দেখা গিয়েছিল মাহি গাড়িটি চালিয়ে যাচ্ছেন এবং বাসের জানালা দিয়ে সেটি অবাক নয়নে দেখছেন রস টেলর(Ross Taylor), টম লেথামরা(Tom Latham)।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.