নটিংহ্যাম: হেয়ারলাইন ফ্র্যাকচার, হাতে ব্যান্ডেজ। আপাতত তিন ম্যাচের জন্য মাঠের বাইরে গেলেও গোটা বিশ্বকাপেই তাঁর খেলা নিয়ে তৈরি হয়েছে সংশয়। তাতে কি? ফিরে আসার অনুপ্রেরণা হিসেবে দিনদু’য়েক আগে উর্দু শায়েরি শুনিয়েছিলেন অনুরাগীদের। এবার আঙুলে ব্যান্ডেজ নিয়েই জিম সেশনে পুরোদস্তুর সময় দিলেন শিখর ধাওয়ান।

শুক্রবার নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে জিম সেশনের একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন ‘গব্বর’। যেখানে দেখা যাচ্ছে আঙুলে ব্যান্ডেজ নিয়েও নিজেকে পুরোপুরি শরীরচর্চায় মগ্ন রেখেছেন ধাওয়ান। তবে শরীরের উপরের অংশ নয়, ভিডিওতে মূলত পা এবং শরীরের নীচের দিকের অংশের কসরৎ করতে দেখা যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়া ম্যাচের শতরানকারীকে। শুধু তাই নয়, ভিডিওটির সঙ্গে ক্যাপশন হিসেবে ধাওয়ান লেখেন, ‘এমন সময়কে তুমি তোমার দুঃস্বপ্ন বলেও ভাবতে পারো কিংবা ফিরে আসার সুযোগ হিসেবেও কাজে লাগাতে পারো। আমার আরোগ্য কামনার জন্য প্রত্যেককে ধন্যবাদ।’ ধাওয়ানের জিম সেশনের এই ভিডিও দেখে স্বভাবতই তাঁর দ্রুত কামব্যাকের অপেক্ষায় প্রহর গুনছে দেশের ক্রিকেট অনুরাগীরা।

আরও পড়ুন: বৃষ্টি থেকে ম্যাচ বাঁচাতে সৌরভের পরামর্শ ইসিবি’কে

গত ৯ জুন ওভালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে শতরান করার পথে বিপক্ষ বোলার কুল্টার-নাইলের লাফিয়ে ওঠা ডেলিভারিতে আঙুলে চোট পান ‘গব্বর’। প্রাথমিকভাবে চোটের গুরুত্ব বোঝা না গেলেও পরবর্তীতে দেখা যায় তাঁর আঙুলে হেয়ারলাইন ফ্র্যাকচার হয়েছে। উল্লেখ্য, অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচে ফিল্ডিং করতেও নামতে পারেননি এই বাঁ-হাতি ওপেনার। বিসিসিআইয়ের তরফ থেকে চিড় ধরার খবর জানিয়ে তিন ম্যাচের জন্য ধাওয়ানের মাঠের বাইরে চলে যাওয়ার বিষয়টি ঘোষণা করা হয়। এমনকি গোটা টুর্নামেন্ট থেকেও ধাওয়ানের ছিটকে যাওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়। প্রাথমিকভাবে ১৩ জুন নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে বৃষ্টিতে ভেস্তে যাওয়া ম্যাচ, ১৬ জুন পাকিস্তানের বিরুদ্ধে মেগা ম্যাচ ও ২২ জুন আফগানিস্তান ম্যাচে মাঠের বাইরে চলে যান ‘গব্বর’।

আরও পড়ুন: ভারতের সঙ্গে দ্বি-পাক্ষিক সিরিজের জন্য ভিক্ষে নয়: এহসান মানি

১১জুন বোর্ডের তরফ থেকে জানানো হয় আপাতত মেডিক্যাল টিমের তত্ত্বাবধানে ইংল্যান্ডে দলের সঙ্গেই থাকছেন ধাওয়ান। পরবর্তী পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর তাঁর চোটের বিষয়ে আপডেট জানানো হবে। তবে বাঁ-হাতি ওপেনারের ‘কভার’ হিসেবে দেশ থেকে উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয় তরুন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান ঋষভ পন্তকে। তবে ধাওয়ান পুরোপুরি টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে না গেলে কোনওভাবেই ভারতীয় দলের ড্রেসিংরুমে প্রবেশের অনুমতি পাবেন না পন্ত।