বেঙ্গালুরু: নারায়ণমূর্তির নেতৃত্বাধীন ইনফোসিসের প্রতিষ্ঠাতারা একদল বিনিয়োগকারীর সমর্থনে ঘুটি সাজাচ্ছে সংস্থার নিয়ন্ত্রণ ফিরে পেতে৷ এজন্য প্রায় এক দশক বাদে সংস্থার অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা নন্দন নিলেকানিকে ফেরাতে চাইছে৷ এই গোষ্ঠী চাইছে নন্দনকে চেয়ারম্যান হিসেবে ফিরিয়ে এনে বর্তমান চেয়রাম্যান আর শেসাসায়ী সহ আরও কয়েকজন বোর্ড মেম্বারদের তাড়াতে ৷ সেই সূত্রের খবর নিলেকানিকে ফেরানোর জন্য অন্যতম শর্ত হল পরিচালকমন্ডলীকে পুনর্গঠন করতে হবে৷

কিছু স্বাধীন পরিচালক রয়েছেন এই বোর্ডে যারা পদত্যাগে রাজি নন , কিন্তু এই সপ্তাহের শেষে বোর্ডে পুনর্গঠন আশা করা হচ্ছে৷ ১৯৮১ সালে নন্দন নিলেকানি ছিলেন এনআর নারায়নমূর্তি সঙ্গে সংস্থার কো-ফাউন্ডার৷

নিলেকানির পুনর্গঠন বোর্ড থাকতে পারেন ইনফোসিসের প্রাক্তন কর্মী ডি এন প্রল্হাদ এবং মুর্তি সুপারিশ করেছেন কিরণ মজুমদার শাহ, রবি ভেঙ্কটেস৷ কিরণ শাহ অবশ্য উড়িয়ে দিয়েছেন এই রটনা ৷ অন্যদিকে নিলেকানি এবং ভেঙ্কটেস কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি৷
বর্তমান পরিস্থিতিতে ইনফোসিসের হাল ধরতে নিলেকানিকে চাইছে বলে বেশ কিছু বিনিয়োগকারীদের চাপ আসছে ৷ তবে কোম্পানি পক্ষ থেকে আপাতত জানানো মত কিছু নেই বলে দাবি করেছেন ইনফোসিসের মুখপাত্র৷

তবে প্রায় গত এক বছর ধরেই নারায়ণমূর্তি সংস্থার বর্তমান কর্তারা যেভাবে সংস্থা চালাচ্ছিলেন তা নিয়ে নানা প্রশ্ন তুলেছিলেন৷যার জেরে প্রতিষ্ঠাতাদের বাইরে থেকে আনা সিইও বিশাল সিক্কা পদত্যাগ করেন৷ তখন পদত্যাগের কারণ হিসেবে সিক্কা মূর্তির দিকেই আঙুল তোলেন৷ তারপরেই দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা ঘিরে অস্থিরতা দেখা যায়৷ ইনফোসিসের শেয়ারের দামও অনেকটাই কমে যায়৷ তারপরেই কথা ওঠে কোম্পানির হাল ধরতে নন্দন নিলেকানিকে ফেরানোর৷ প্রসঙ্গত ২০০৯ সালে ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন অথোরিটি অফ ইন্ডিয়ার চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পান নন্দন যা একজন পূর্ণ মন্ত্রীর মর্যাদা আর তখন তিনি ইনফোসিস ছেড়ে চলে যান ৷