সিডনি: নিউ ইয়ার টেস্টে টস ভাগ্য সঙ্গ দিল না ভারতের৷ বৃহস্পতিবার থেকে এসসিজি-তে বছরের প্রথম তথা সিরিজের তৃতীয় টেস্টে ভারতের বিরুদ্ধে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নিল অস্ট্রেলিয়া৷ ইনিংসের চতুর্থ ওভারে ডেভিড ওয়ার্নারকে তুলে নিয়ে দারুণ শুরু কর ভারত৷

সিডনিতে সিরিজের টেস্টে দুই দলেই একজন করে অভিষেক হল৷ ভারতের হয়ে টেস্ট ক্যাপ পেলেন ডানহাতি পেসার নভদীপ সাইনি৷ আর অস্ট্রেলিয়ার ব্যাগি গ্রিন হাতে পেলেন উইল পুকভস্কি৷ এছাড়াও চোট সারিয়ে দুই দলে ফিরেছেন দুই তারকা ব্যাটসম্যান৷ চোটের জন্য প্রথম দু’টি টেস্টে না-খেলা অজি ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার এবং ভারতের রোহিত শর্মা৷

এদিন দারুণ শুরু করে ভারত৷ এই টেস্টে নতুন ওপেনিং জুটি অস্ট্রেলিয়ার৷ অজিদের হয়ে এদিন ইনিংস শুরু করেন ডেভিড ওয়ার্নার ও উইল পুকভস্কি৷ ভারতের হয়ে বোলিং শুরু করেন জসপ্রীত বুমরাহ৷ প্রথম ওভার মেডেন দেন বুমরাহ৷ তাঁর সঙ্গে নতুন বলে শুরু করেন আগের টেস্টে অভিষেক হওয়ায় মহম্মদ সিরাজ৷ ইনিংসে চতুর্থ ওভারের তৃতীয় ডেলিভারিতে ওয়ার্নারকে তুলে নিয়ে অস্ট্রেলিয়াকে প্রথম ধাক্কা দেন সিরাজ৷ দ্বিতীয় স্লিপে ওয়ার্নারের ক্যাচ ধরেন চেতেশ্বর পূজারা৷

টস জিতে অজি ক্যাপ্টেন পেইন বলেন, ‘ডেভিড ওয়ার্নার দলে ফেরায় শক্তি বেড়েছে৷ এছাড়াও তরুণ উইল পুকভস্কিকে নিয়ে আমরা ভীষণ উত্তেজিত৷ আমরা সিডনিতে ভালো খেলার চেষ্টা করব৷’

টস হারের পর ভারতীয় ক্যাপ্টেন অজিঙ্ক রাহানে বলেন, ‘রোহিত দলে ফেরায় আমরা ভীষণ উত্তেজিত৷ নেটেও ও দারুণ ব্যাট করছিল৷ ওর অভিজ্ঞতা নি:সন্দেহে কাজে আসবে৷ নভদীপ সাইনির অভিষেক হওয়ায় খুশি৷ ও কঠোর পরিশ্রম করছে৷ মেলবোর্নে অভিষেক হয়েছিল সিরাজের৷ এখানে অভিষেক হচ্ছে সাইনির৷ আমরা এই টেস্ট নিয়ে ফোকাস করছি৷ অ্যাডিলেড ও মেলবোর্ন আমাদের কাছে এখন ইতিহাস৷’

অ্যাডিলেডে সিরিজের প্রথম টেস্ট হারলেও মেলবোর্নে দ্বিতীয় টেস্ট জিতে সিরিজে সমতা ফেরায় ভারত৷ ফলে সিডনি টেস্টে নামার আগে সিরিজ ১-১৷ অ্যাডিলেডে পিঙ্ক বল টেস্টে ভারতককে ৮ আউকেটে হারিয়ে সিরিজে এগিয়ে ছিল টিম পেইনের দল৷ কিন্তু মেলবোর্নে বক্সিং ডে টেস্টে দারুণ প্রত্যাবর্তন টিম ইন্ডিয়ার৷ বিরাট কোহলির অনুপস্থিতিতে দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেন অজিঙ্ক রাহানে৷ ৮ উইকেটে বক্সিং ডে টেস্ট জিতে নেয় ভারত৷

ভারতীয় দল: রোহিত শর্মা, শুভমন গিল, চেতেশ্বর পূজারা, অজিঙ্ক রাহানে (ক্যাপ্টেন), হনুমা বিহারী, ঋষভ পন্ত, রবীন্দ্র জাদেজা, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, জসপ্রীত বুমরাহ, মহম্মদ সিরাজ ও নভদীপ সাইনি৷

অস্ট্রেলিয়া দল: ডেভিড ওয়ার্নার, উইল পুকভস্কি, মার্নাস ল্যাবুশানে, স্টিভ স্মিথ, ম্যাথু ওয়েড, ক্যামেরন গ্রিন, টিম পেইন (ক্যাপ্টেন), প্যাট কামিন্স, মিচেল স্টার্ক, নাথান লায়ন ও জোস হ্যাজেলউড৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.