নয়াদিল্লি ও ঢাকা: বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ঢাকা সফরে যাবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এর আগে করোনা পরিস্থিতির কারণে, ভারতের প্রধানমন্ত্রী মুজিবুর রহমান জন্মশতবার্ষিকী অনুষ্ঠানে যাওয়া বাতিল করেন।

নয়া দিল্লিতে এসেছেন বাংলাদেশের বিদেশ সচিব মাসুদ বিন মোমেন। ঢাকার বাংলাদেশ বিদেশমন্ত্রক সূত্রে খবর, চলতি দিল্লি সফরে বিদেশ সচিব ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে সফরের আমন্ত্রণ জানাবেন।

জানা গিয়েছে, আগামী ২৬ মার্চ বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ঢাকা সফর চূড়ান্ত করতেই মূলত তিনি দিল্লি­ গেছেন।

শুক্রবার নয়াদিল্লিতে বাংলাদেশের বিদেশ সচিব মাসুদ বিন মোমেনের সঙ্গে আলোচনা হয় ভারতের বিদেশ সচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা। বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস) জানাচ্ছে, ভারতের হাইকমিশনার হিসেবে ঢাকায় ছিলেন শ্রিংলা। তাঁর সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা করেছেন বাংলাদেশের বিদেশ সচিব।

বৈঠকে দুই দেশ পারস্পরিক সহযোগিতা আরও জোরদার করতে একমত হয়েছে। এই বৈঠকে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী, দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর ও বাংলাদেশের ‘জাতির পিতা’ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে সহযোগিতার সম্পর্ক জোরদারে উভয়পক্ষ সম্মত হয়েছে।

বৈঠকে আগামী মার্চে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফরের প্রস্তুতি নিয়ে আলোচনা হয়। এছাড়া দুই দেশের মধ্যে কোভিড মোকাবিলা, বাণিজ্য, কানেক্টিটিভিটি, উন্নয়ন অংশীদারিত্ব, বিদ্যুৎ জ্বালানি, জল বণ্টনের পাশাপাশি সীমান্ত সুরক্ষা ও প্রতিরক্ষা সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।