নয়াদিল্লি: সম্প্রতি ভাইরাল হয় একটি ভিডিও। যাতে দেখা যায় অর্ণব গোস্বামীকে। আর তাঁকে কিছু অপ্রীতিকর প্রশ্ন করছিলেন কমেডিয়ান কুণাল কামরা। এই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর ইন্ডিগো, এয়ার ইন্ডিয়ার মত সংস্থা কুনালে ‘ব্যান’ করে দিয়েছে ৬ মাসের জন্য। এবার ওই বিমানের পাইলট কুনাল কামরাকে নিয়ে মুখ খুললেন।

ইন্ডিগোর যে বিমানে ঘটনাটি ঘটেছে, সেই বিমানের পাইলট বৃহস্পতিবার বলেছেন, ‘শুধু সোশ্যাল মিডিয়ার ভিডিও দেখে কেন কুনালের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হল।’ এই নিষেধাজ্ঞা জারির আগে তাঁকে একবার জিজ্ঞাসা করা উচিৎ ছিল বলে উল্লেখ করেছেন তিনি। তাঁর ন’বছরের পাইলট জীবনে এমন ঘটনা ঘটেনি বলেও জানিয়েছেন তিনি।

বিমানের ক্যাপ্টেনের মতে, কুণাল কামরার ব্যবহার নিষেধাজ্ঞা জারি করার যোগ্য নয়। এমনকি তিনি জানান, এর আগে এর থেকে দুর্ব্যবহারের মত ঘটনা ঘটেছে, যা unruly বলে চিহ্নিত করা হয়নি।

উল্লেখ্য, এদিনই কুণাল একটি ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘অর্ণব গোস্বামী, আমি দুঃখিত নই।’

বিমানের মধ্যেই সাংবাদিক অর্ণব গোস্বামীকে নিয়ে নানারকমের মন্তব্য করেছিলেন স্ট্যান্ড আপ কমেডিয়ান কুণাল কামরা। সেই মন্তব্য সোশ্যাল মিডিয়াতেও ছড়িয়ে পড়ে। এই ধরনের ঘটনা ঘটায় পদক্ষেপ নিয়েছে ইন্ডিগো এয়ারলাইন্স, এয়ার ইন্ডিয়া, স্পাইসজেট।

কুণাল ট্যুইট করে বলেন, “বিমানে যাওয়ার সময় আমি অর্ণব গোস্বামীকে দেখি। আমি ওর সঙ্গে কথা বলতে গিয়েছিলাম। কিন্তু উনি ফোনে ব্যস্ত ছিলেন। তাই আমি অপেক্ষা করি। তারপর ওনার সাংবাদিকতা আমার কেমন লাগে সে ব্যাপারে আমি কিছু কথা বলি। কিন্তু উনি আমার সঙ্গে কথা বলতে চাননি। আমাকে মানসিকভাবে অসুস্থ বলেন উনি। তাই আমি ওনার ব্যাপারে কিছু কথা বলি। ওনার কানে হেডফোন ছিল। ওনার শো’তে যেভাবে সবার সঙ্গে কথা বলা হয়, সেভাবেই কথা বলছিলাম আমি। তারপর অবশ্য বিমানকর্মীরা আমাকে বললে আমি নিজের সিটে এসে বসি। আমি প্রত্যেক বিমানকর্মী ও পাইলটের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছি। অন্য যাত্রীদের কাছেও ক্ষমা চাইছি। কিন্তু একজনের কাছে নয়।”