ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি: ভারতে কর্মহীনের হার মে মাসে ২৩.৫ শতাংশ থেকে জুন মাসে কমে হল ১১ শতাংশ। বুধবার প্রকাশিত সিএমআইই রিপোর্ট এমনটাই জানাচ্ছে। যেহেতু সরকার লকডাউনে ধীরে ধীরে বেশ কিছু শিথিল করে দিচ্ছে ফের অর্থনৈতিক কার্যকলাপ শুরু হয়েছে।

পৃথিবীর দ্বিতীয় জনবহুল রাষ্ট্রে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে প্রায় পাঁচ লক্ষ লোক। যার ফলে অর্থনৈতিক কার্যকলাপ ধাক্কা খেয়েছে। কিন্তু বেকারত্বের হার কমেছে এমন তথ্যের অর্থ আর্থিক দিক থেকে সবচেয়ে খারাপ সময়টা এখন অন্তত পেরিয়ে আসা হয়েছে।

আলাদাভাবে বুধবার অর্থমন্ত্রক একটি বিবৃতিতে জানিয়েছে, পণ্য পরিষেবা কর আদায় বৃদ্ধি ইঙ্গিত করছে অর্থনৈতিক কার্যকলাপকে, জুন মাসে যা ছুয়েছে ৯০৯.১৭ বিলিয়ান টাকা যা গত বছরের এই মাসের আদায়ের ৯১ শতাংশ।

গোটা বিশ্বজুড়েই এখন করোনা মহামারীর আকার ধারণ করেছে। করোনার থাবা বসেছে এ দেশের উপর। করোনাকে আটকাতে লকডাউন ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এই পথে হাঁটতে গিয়ে দেশের সমস্ত রকম অর্থনৈতিক কার্যকলাপ বলতে গেলে স্তব্ধ হয়ে যায়। এখন লকডাউন চললেও তা ধীরে ধীরে অনেক কাজ কর্ম শুরু করার ব্যাপারে নিয়ম বিধি শিথিল করা শুরু হয়েছে এবং ক্রমশ এই শিথিলের দিকটা বাড়ানো হচ্ছে।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।