অস্ট্রেলিয়া থেকে তোলা সেই ছবি

মেলবোর্ন: সোমবার অর্থাৎ ২৩ জুন ইতিহাসের দোরগোড়ায় পা রেখেছে ভারত। ঠিক দুপুর ২টো ৪৩ মিনিটে চাঁদের উদ্দেশে পাড়ি দেয় ভারতের চন্দ্রযান। আর ভারতের এই মহাকাশযানই ইন্টারনেটে হয়ে গেল ইউএফও।

শ্রীহরিকোটা থেকে যখন চন্দ্রযান ছাড়ল, অস্ট্রেলিয়ায় তখন সন্ধে সাড়ে ৭টা, অর্থাৎ আকাশ অন্ধকার। ঠিক ওই সময়েই অস্ট্রেলিয়ার আকাশে রহস্যময় আলো দেখা গিয়েছে বলে দাবি করেন সেখানকার বাসিন্দারা। অস্ট্রেলিয়ার কুইনসল্যান্ডের আকাশে দেখা গিয়েছে সেই আলো। স্বাভাবিকভাবেই চমকে যান সেখানকার মানুষ।

কুইনসল্যান্ডে স্থানীয় সময় সন্ধে সাড়ে ৭টায় জুলিয়া ক্রিক ক্যারাভান পার্ক থেকে সেই ছবি তোলা হয়। ফেসবুকে আপলোড করা হয় সেই ছবি।

সেইসময় পার্কে ডিনার করছিলেন শতাধিক মানুষ। ছিলেন বহু পর্যটকও। তাঁরা প্রত্যেকেই ওই দৃশ্যের সাক্ষী ছিলেন। সবাই সেইসময় চীৎকার করে ওঠেন ওই আলো দেখে। অনেকেই মনে করেন এই বুঝি ইউএফও দেখা যাচ্ছে, এখনই বুঝি নেমে আসবে এলিয়েনরা।

কিন্তু, যুক্তি দিয়ে বিচার করলেই সব সন্দেহ পরিস্কার হয়ে যাবে। ভারত আর সিডনির মধ্যে সময়ের ফারাক ৫ ঘণ্টার। সুতরাং চন্দ্রায়ন-২ লঞ্চ করার সময় অস্ট্রেলিয়ায় ছিল রাত।

১৬ মিনিট ধরে পৃথিবীর আকাশ অতিক্রম করেছে চন্দ্রায়ন। কখন, কোথায় ছিল সেই যান, তার চার্ট দিয়েছে ইসরো। সেটা হিসবে করলেই বোঝা যাবে ওইসময় অস্ট্রেলিয়ার উপর দিয়ে ওই সময় চন্দ্রায়নই যাচ্ছিল।

সুতরাং ইউএফও নয়, চন্দ্রযান দেখেই হইচই পড়ে গিয়েছে অস্ট্রেলিয়ায়।