জাকার্তা: ২০১৯ অগাস্টে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর থেকে লাগাতার ব্যর্থতায় জেরবার পুসারলা ভেঙ্কট সিন্ধু। অলিম্পিক যত এগোচ্ছে রিও’র রুপোজয়ী শাটলারের এহেন পারফরম্যান্সে কপালে চিন্তার ভাঁজ যেন আরও বাড়ছে দেশের ক্রীড়া অনুরাগীদের। মালয়েশিয়ায় কোয়ার্টার ফাইনালে হেরে শুরু করেছিলেন ২০২০। বছরের দ্বিতীয় টুর্নামেন্টেও বদলালো না ব্যর্থতার চিত্রটা। প্রথম রাউন্ডে জিতলেও ইন্দোনেশিয়া মাস্টার্সের দ্বিতীয় রাউন্ডেই ছিটকে গেলেন হায়দরাবাদি শাটলার।

গতকাল প্রথম রাউন্ডে হেরে বিদায় নিয়েছিলেন দেশোয়ালি সাইনা নেহওয়াল। আর সাইনাকে হারানো জাপানি শাটলার সায়াকা তাকাহাশির সঙ্গে জিততে পারলেন না সিন্ধুও। ১ ঘন্টা ১৬ মিনিটের লড়াইয়ে প্রথম গেম জিতেও দ্বিতীয় ও তৃতীয় সেট হেরে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিলেন বিশ্বের ছয় নম্বর। বৃহস্পতিবারের ম্যাচের আগে হেড টু হেডে ৪-২ এগিয়েছিলেন সিন্ধু। কিন্তু বৃহস্পতির লড়াইয়ে ব্যবধানটা এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হল না তাঁর। সিন্ধুর বিপক্ষে ম্যাচের ফল ২১-১৬, ১৬-২১, ১৯-২১।

আরও পড়ুন: কীর্তি আজাদের চরিত্রে দিনকার, প্রকাশ্যে এল ৮৩’র নয়া পোস্টার

উল্লেখ্য, বুধবার প্রথম রাউন্ডের লড়াইয়ে সিন্ধু জিতলেও এই তাকাহাশির কাছে হেরেই বিদায় নিয়েছিলেন বিশ্বের ১১ নম্বর সাইনা। প্রথম গেম জিতলেও জাপানি প্রতিদ্বন্দ্বীর বিরুদ্ধে ম্যাচ নিজের নামের করে নিতে ব্যর্থ হয়েছিলেন ২০১২ লন্ডন অলিম্পিকের ব্রোঞ্জজয়ী। সাইনার বিপক্ষে ম্যাচের ফল ছিল ২১-১৯, ১৩-২১, ৫-২১। দ্বিতীয় ও তৃতীয় গেমে কার্যত দাঁড়ানোরই সুযোগ পাননি তিনি।

আরও পড়ুন: ভারতীয় ক্রিকেটের দলের সুপারফ্যানের প্রয়াণে বোর্ডের শ্রদ্ধার্ঘ্য

পুরুষদের সিঙ্গলসেও ব্যর্থ দিন ভারতের জন্য। বুধবার কিদাম্বি শ্রীকান্ত, সৌরভ বর্মার পর বৃহস্পতিবার হারলেন সমীর বর্মা, পারুপল্লী কাশ্যপ ও এইচ এস প্রণয়। পুরুষদের ডাবলসে ম্যাচ হারলেন রানকিরেড্ডি-চিরাগ জুটি। সবমিলিয়ে ইন্দনেশিয়ান মাস্টার্সে অভিযান শেষ হল ভারতের।