নয়াদিল্লি: করোনা আবহাওয়ার মধ্যে ভারতে শুরু হয়েছে অ্যাপ নিয়ে লড়াই। আর সেই নিয়েই কয়েকদিনের মধ্যে প্লে স্টোরে জনপ্রিয় ভিডিও প্ল্যাটফর্ম tiktok এর রেটিং নামতে শুরু করল। কয়েকদিন আগেও এই অ্যাপের রেটিং ছিল যথেষ্ট ভাল। কিন্তু সেখান দ্রুত এভাবে রেটিং কমার কারণ কি তা নিয়ে ভাবতে শুরু করেছে অনেকেই।

এর আগেও এই অ্যাপের সঙ্গে অন্য অ্যাপ নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছিল। কিন্তু তারপরেও এই জনপ্রিয় ভিডিও অ্যাপে অ্যাসিড আক্রমণ কে সমর্থন নিয়ে একটি ভিডিও বানানোর জেরে স্বাভাবিক ভাবেই ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেছিলেন সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীরা। আর তাঁর জেরেই প্রভাব পড়েছে জনপ্রিয় এই অ্যাপের উপরে বলে মনে করছেন অনেকে।

কিছুদিন আগেই জনপ্রিয় টিকটক স্টার ফাইজাল সিদ্দিকি একটি ভিডিও আপলোড করেছিলেন। যেখানে এই অ্যাসিড আক্রমণকে পরোক্ষ ভাবে সমর্থন জানিয়ে একটি ভিডিও বানিয়েছিলেন। আর তা ভাইরাল হতেই যথেষ্ট ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছিলেন সকলে। সকলে মিলে রিপোর্ট করেছিলেন ওই ভিডিও প্ল্যাটফর্মে। আর তাঁর জেরে মহিলা কমিশনের তরফে টিকটকের কাছে ওই বিষয়ে চিঠি দেওয়া হয় এবং এই অ্যাসিড আক্রমণকে প্রকারান্তরে সমর্থন জানানো নিয়ে তীব্র সমালোচনা করা হয়। তার ঠিক কিছুক্ষণের মধ্যেই নেটিজেনরা ওই অ্যাপ ডাউনলোড করা শুরু করে। পাশপাশি ওই অ্যাপে নেগেটিভ রেটিং দিতে শুরু করে।

পাশপাশি ওই ভিডিওটির স্ক্রিন শট তুলে তা সোশ্যাল মিডিয়াতেও শেয়ার করা হয়। আর যার জেরে একলাফে রেটিং নেমে যায় ওই অ্যাপের। এই টিকটকের গুগল প্লে তে এই মুহূর্তে রেটিং ২.০। পাশপাশি এই অ্যাপ ব্যান করার দাবিও সোশ্যাল মিডিয়াতে জানানো হয়। এর আগে নারী নির্যাতন এবং সচেতনতা নিয়ে একাধিক বিদ্বজ্জন মন্তব্য করেছেন। কিন্তু তারপরেও কিভাবে এই জাতীয় বিষয় নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে ভিডিও বানানো হয় তা নিয়েও উঠছে প্রশ্ন।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ