গন্ডোমার: প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে রোমানিয়ার কাছে হেরে সরাসরি টোকিও যাওয়ার রাস্তা শুক্রবারই বন্ধ হয়ে গিয়েছিল দেশের মহিলা টেবিল টেনিস দলের। প্লে-অফ খেলে অলিম্পিকে যোগ্যতা অর্জনের রাস্তা খোলা ছিল, সেটুকুও বন্ধ হয়ে গেল শনিবার। পর্তুগালের মাটিতে প্লে-অফ ম্যাচে এদিন ফ্রান্সের কাছে ২-৩ ব্যবধানে হেরে টোকিও অলিম্পিকের যোগ্যতা অর্জনে ব্যর্থ হল মহিলা টেবিল টেনিস দল।

মহিলাদের দলগত র‍্যাংকিংয়ে ফ্রান্সের চেয়ে এক ধাপ এগিয়ে থাকা ভারত যদিও এদিন লিড নেয় প্রথম ম্যাচ জিতে। ফ্রান্সের স্টেফানি-যুয়ান জুটিকে ১১-৭, ৬-১১, ১০-১২, ১১-৪, ১১-৮ ব্যবধানে হারিয়ে ভারতকে এগিয়ে দেন ঐহিকা মুখোপাধ্যায়-সুতীর্থা মুখোপাধ্যায় জুটি। কিন্তু সিঙ্গলসে প্রথম ম্যাচে অপ্রত্যাশিত হার হজম করে বসেন দেশের প্রথম সারির অভিজ্ঞ প্যাডলার মনিকা বাত্রা। আইটিটিএফ র‍্যাংকিংয়ে ১৩৪ ধাপ পিছিয়ে থাকা মেরি মিগোটের কাছে ৭-১১, ১১-৩, ৯-১১, ১১-৩, ৭-১১ ব্যবধানে পরাজিত হন বাত্রা। এরপর জিয়া নুয়ান যুয়ানের কাছে স্ট্রেট গেমে সিঙ্গলস হেরে পরিস্থিতি জটিল করে তোলেন সুতীর্থা। ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে যায় ফ্রান্স।

আরও পড়ুন: পদ্ম বিভূষণ মেরি কম, পদ্ম ভূষণ সম্মান পাচ্ছেন পিভি সিন্ধু

তবে দ্বিতীয় সিঙ্গলসে স্টেফানিকে স্ট্রেট গেমে হারিয়ে ভারতকে লড়াইয়ে ফিরিয়ে আনেন বাত্রা। দ্বিতীয় সিঙ্গলসে বাত্রার পক্ষে ম্যাচের ফল ১১-৭, ১২-১০, ১১-৪। কিন্তু ২-২ অবস্থায় মিগোটের বিরুদ্ধে সিঙ্গলসে ম্যাচ হেরে ভারতের আশা এগিয়ে নিয়ে যেতে পারেননি ঐহিকা। ২-১ এগিয়ে থেকেও ভারতের এই মহিলা প্যাডলার টানা দু’টি গেম হেরে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে শেষ হয়ে যায় ভারতের আশা। ঐহিকার বিপক্ষে ম্যাচের ফল ১১-৬, ৮-১১, ১১-৫, ৯-১১, ৯-১১।

আরও পড়ুন: এসপাদা-কোলাডোর গোলে জয়ের সরণীতে ফিরল লাল-হলুদ

দলগত ইভেন্টে আশা শেষ হলেও সিঙ্গলসে এখনও টোকিওয় যোগ্যতা অর্জনের আশা রয়েছে মনিকা বাত্রা ও অর্চনা কামাথের। আগামী এপ্রিলে থাইল্যান্ডে টোকিও অলিম্পিকে যোগ্যতা অর্জন পর্বে অংশ নেবেন দেশের দুই মহিলা প্যাডলার।