নয়াদিল্লি: শীতকালে স্নান করতে ভয় পান অনেকেই। সকালে উঠে গায়ে জল ঢালাটা রীতিমত আতঙ্কের। ভাবুন তো, সিয়াচেনের সৈনিকরা কীভাবে দিনের পর দিন -৫০ ডিগ্রি তাপমাত্রায় দাঁড়িয়ে কীভাবে স্নান করেন। আর স্নান না করার জন্য তাঁদের স্বাস্থ্যের ক্ষতি হচ্ছে। তাই এবার জল ছাড়াই যাতে স্নান করা যায়, সেই ব্যবস্থাই করেছে এক সংস্থা।

Clensta নামে এক সংস্থা ‘স্বচ্ছ ভারত’ মিশনের অধীনে এই বিশেষ পদক্ষেপ নিয়েছে। মূলত সেনাবাহিনীর কথা মাথায় রেখেই এই প্রোডাক্ট তৈরি করা হয়েছে। এতে জলও লাগবে না অথচ স্নান করার মত হাইজিন রক্ষা করাও সম্ভব হবে।

এই সংস্থা তৈরি করেছে এক ধরনের জেল। শুধু স্নানই নয়, শ্যাম্পুর বিকল্প হিসেবেও কাজ করবে সেই প্রোডাক্ট। কোনোটাতেই লাগবে এক বিন্দুও জল।

তবে শুধু সেনা জওয়ানদের জন্য এই প্রোডাক্ট নয়। অনেক অসুস্থ মানুষ আছেন যাঁরা শয্যাশায়ী। তাঁদের পক্ষেও স্নান করা অসুবিধাজনক, তাই তাঁরাও এটি ব্যবহার করতে পারবেন। ডার্মাটোলজিস্টদের দিয়ে এটির পরীক্ষা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংস্থার কর্ণধার পুনীত গুপ্তা।

তিনি জানিয়েছেন, এতে শুধু শরীরের ময়লা পরিস্কার হবে তাই নয়, ত্বক থেকে তেল, জীবাণুও সরিয়ে দেয়। ত্বকের পিএইচ লেভেলও ঠিক থাকে এতে। ত্বককে নরম রাখতেও সাহায্য করবে এটি।

আইআইটি দিল্লির সঙ্গে যৌথভাবে এই কাজ করেছে সংস্থাটি। এতে কোনও আ্যালকোহল নেই। এতে রয়েছে chlorhexidine, dehydroacetic acid, benzyl alchohol. যে সাবান ব্যবহার করতে অন্তত ৭০ লিটার জল দরকার হয়, সেই সাবানের মতই কাজ করবে এই জেল।

এটি গায়ে মেখে, মেসেজ করে তোয়ালে দিয়ে শুকনো করে মুছে ফেলতে হবে। চুলের ক্ষেত্রেও তাই। চুলে মেখে মুছে নিতে হবে। জল দিয়ে ধোয়ার দরকার নেই।

জানা গিয়েছে, সংস্থার এই উদ্যোগে সাড়া দিয়েছে আর্মি ও নেভি। এছাড়া বিভিন্ন বেসরকারি-সরকারি হাসপাতাল ও সংস্থাও এই জেল গ্রহণ করেছে। এখনও পর্যন্ত ৩ লক্ষ বোতল বিক্রি হয়েছে।