মুম্বই: বাংলা নববর্ষের প্রথম দিনেই ২০১৯ বিশ্বকাপের দল বেছে নিল ভারত৷ সোমবার বিসিসিআই-এর সদর দপ্তর মুম্বইয়ের ক্রিকেট সেন্টারে দ্বাদশ বিশ্বকাপের চূড়ান্ত ১৫ জনের দল বেছে নিলেন নির্বাচকরা৷ ঘন্টা দু’য়েক বৈঠকের পর বিশ্বকাপে বিরাটের দলের সৈন্যদের নাম ঘোষণা করলেন জাতীয় নির্বাচক কমিটির চেয়ারম্যান এম এস কে প্রসাদ৷ নির্বাচকরা ছাড়াও বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ক্যাপ্টেন বিরাট কোহলি ও প্রধান কোচ রবি শাস্ত্রী৷

একনজরে ভারতের ১৫ সদস্যের দল-

বিরাট কোহলি(অধিনায়ক), রোহিত শর্মা(সহ অধিনায়ক) ,শিখর ধাওয়ান, লোকেশ রাহুল, বিজয় শংকর, মহেন্দ্র সিং ধোনি, দীনেশ কার্তিক, কেদার যাদব, হার্দিক পান্ডিয়া,  কুলদীপ যাদব, যুবেন্দ্র চাহাল, ভুবনেশ্বর কুমার, মহম্মদ শামি, জসপ্রীত বুমরাহ, জাদেজা৷

আরও পড়ুন- অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপ দল ঘোষণা: স্মিথ-ওয়ার্নারের প্রত্যাবর্তন, বাদ গেলেন দুই তারকা

তৃতীয় ওপেনার হিসেবে লোকেশ রাহুলকে ইংল্যান্ডে উড়িয়ে নিয়ে যাচ্ছে ভারত৷ অন্যদিকে অল-রাউন্ডার হিসেবে দলের সঙ্গে জুড়লেন জাদেজা, ব্যাটিং অল-রাউন্ডার হিসেবে খেলবেন বিজয় শংকর৷

নির্বাচকরা জানিয়েছেন, বিশ্বকাপ দলে চার নম্বরে খেলানো হতে পারে বিজয়কে৷ বিকল্প ভাবনা থাকলে লোকেশ রাহুলকেও চার নম্বরে দেখে নেওয়া হতে পারে৷ এই নিয়ে টিম ম্যানেজমেন্টই অবশ্য চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে৷

অন্যদিকে দ্বিতীয় উইকেটকিপার হিসেবে ভারত থেকে ইংল্যান্ডের বিমান ধরছেন দীনেশ কার্তিক৷ ঋষভ পন্তের পরিবর্তে দীনেশেই আস্থা রাখলেন নির্বাচকরা৷ আইপিএলে অবশ্য ব্যাট হাতে ফর্মে নেই দীনেশ, অন্যদিকে ব্যাট হাতে দারুণ ছন্দে পন্ত৷

নির্বাচক প্রধান এম এস কে প্রসাদ অবশ্য জানিয়েছেন, আইপিএলের সাম্প্রতিক ফর্মের কথা মাথায় রেখে দল ঘোষণা করা হয়নি৷ পন্ত অবশ্যই প্রতিভাবান, কিন্তু বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখেই এই মূহুর্তে দীনেশকে বেছে নেওয়া হয়েছে৷ উইকেট কিপিং অভিজ্ঞতায় এগিয়ে থাকাতেই ইংল্যান্ডের বিমান ধরছেন দীনেশ৷

দল ঘোষণায়, চতুর্থ পেসার বেছে নেওয়ার সম্ভবনা থাকলেও এদিন কোনও নাম নেওয়া হয়নি৷ নির্বাচক প্রধান জানিয়েছেন, ‘অভিজ্ঞ তিন পেসারের পাশাপাশি দুই অল-রাউন্ডার থাকছে৷ হার্দিক ছাড়াও বল হাতে দেখা যেতে পারে বিজয় শংকরকে৷’ সেকারণেই দলে তিন পেসার ভুবি, বুমরাহ ও শামি থাকার পর চতুর্থ পেসারের পথে নির্বাচকরা হাঁটলেন না৷ পরিবর্তে স্পিনার- অলরাউন্ডার জাদেজাকে দলে নিয়ে দলের শক্তি আরও বৃদ্ধি করা হয়েছে৷ বিশ্বকাপে একাধিক বিকল্প পরিকল্পনা খোলা রাখতেই এমন কম্বিনেশন বেছে নেওয়া হয়েছে বলে জানান নির্বাচক প্রধান এমএস কে প্রসাদ৷