তিনি বীর, তিনি অমর, তিনি ‘বাবা হরভজন সিং’

কলকাতা: দশটা পাঁচটার চাকরি বা শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত রুমের মধ্যে বসে তাঁরা দেশ উদ্ধার করেন না৷ প্রাণের মায়া ত্যাগ করেই তাঁরা আসেন এই কাজে৷ কোনও ক্ষুদ্র স্বার্থ নয়, এক বৃহত্তর স্বার্থে তাঁরা নিবেদিত প্রাণ৷ কারণ তাঁরা যোদ্ধা৷ তাঁরা বীর৷ আর বীরেদের ধর্মই, যে কোনও বাধা বিপত্তি প্রতিকুলতার সম্মুখীন হয়ে দেশমাতা, দেশবাসীর রক্ষা করা৷ এমনই এক অমর যোদ্ধা বাবা হরভজন সিং, যিনি ‘হিরো অব নাথুলা’ নামেই ভারতীয় সেনাবাহিনীতে পরিচিত৷ আজ তাঁকে আরও একবার স্মরণ করে নেওয়া যাক৷

তাঁর ভক্তের সংখ্যা অগণিত৷ তাঁরাই তাঁকে বাবা নামে সম্বোধন করেন৷ সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে, বিশেষ করে ভারতীয় সেনাদের বেশিরভাগই বিশ্বাস করেন তাঁর আত্মা প্রত্যেক সেনার রক্ষায় সদাসতর্ক, যাঁরা নাথুলা পাস এবং সাইনো-ইন্ডিয়ান সীমান্তে কাজ করেন৷ অনেকেই বিশ্বাস করেন, যারা বাবাকে বিশ্বাস করেন, বাবা তাঁদের সবসময় সাহায্য করেন৷

মাত্র ২২বছর জীবিত ছিলেন বাবা হরভজন সিং৷ তাঁকে ঘিরে রয়েছে অনেক লোকগাথা৷ তাঁর মৃ্ত্যু সম্পর্কে জানা যায়, তিব্বত এবং সিকিমের মাঝে নাথুলা পাসে ১৯৬৫-র সাইনো-ইন্ডিয়ান যুদ্ধে তিনি শহীদ হন৷ তাঁর সাহসিকতা ও কাজের জন্য মরণোত্তর মহাবীর চক্র প্রদান করা হয়৷

- Advertisement -

কাজে থাকাকালীন তাঁর মৃত্যু হয়৷ মৃত্যুর তিন দিন পর তাঁর দেহ পাওয়া যায়৷ কথিত আছে, হরভজন সিং উদ্ধারকারী দলকে নাকি সাহায্য করেন তাঁর দেহ খুঁজে বের করতে৷ শুধু তাই নয়, তাঁর এক সহকর্মীকে তাঁর স্মৃতির উদ্দেশ্যে একটি স্মৃতিসৌধ তৈরি করার জন্য নাকি স্বপ্নাদেশও দেন তিনি৷
কিছু ভারতীয় সেনা মনে করেন ইন্দো-চিন যুদ্ধের আগে বাবা ভারতীয় সেনাদের এই আসন্ন আক্রমনের বিষয়ে সতর্ক করেন৷ নাথুলার সেনাদের সংগ্রহ করা কিছু অর্থ প্রতিবছর বাবা হরভজনের মা কে পাঠানোর কথাও শোনা যায়৷

বাবার স্মৃতিসৌধে গেলে দেখতে পাবেন, এটি একটি শয়নকক্ষের মতো কিছুটা, যেখানে সেনাদের পোষাক, জুতো, বিছানা, কম্বল সবকিছু রাখা আছে৷ শুধু তাই নয়, তাঁর জন্য নির্দিষ্ট একটি কার্যালয়ও রয়েছে৷

বাবাকে নিয়ে প্রচলিত এমন অনেক গাথা রয়েছে যা একটু কান পাতলেই শোনা যায়৷ তার সাহসিকতা, সাহায্যের মনোভাব, তাঁর আত্মত্যাগ তাঁকে অমর করে রেখেছে সকের মনে৷ শুধু তাই নয়, তাঁর কাজ আজও শত শত সেনা জওয়ানদের উদ্বুদ্ধ করে কাজে এগিয়ে আসার ক্ষেত্রে৷

শুধু জীবদ্দশায় নয়, মৃত্যুর ওপার থেকেও তিনি সজাগ, তিনি যেন বদ্ধ পরিকর সকলকে সাহায্য করতে৷ তিনি যোদ্ধা, তিনি বীর, তিনি অমর প্রতিটি ভারতীয় সৈনিকের কাছে৷ ভারতবাসীর কাছে৷

All rights reserved by @ Kolkata24x7 II প্রতিবেদনের কোন অংশ অনুমতি ছাড়া প্রকাশ করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
-