নয়াদিল্লি: লোকসভা ভোটের আগেই রেলে বিপুল সংখ্যক নিয়োগের কথা ঘোষণা করলেন রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল। নিয়োগ করা হয়ে অন্তত ২ লক্ষ ৩০ হাজার কর্মী।

আগামী দু’বছরে হবে এই নিয়োগ। প্রথম দফায় নেওয়া হবে ১ লক্ষ ৩১ হাজার ৪২৮ জনকে, তার জন্য নোটিশ জারি করবে রেল৷ ফেব্র‌ুয়ারি বা মার্চেই রেল নিয়োগের নোটিশ দেবে৷ দ্বিতীয় পর্যায়ে ৯৯ হাজার কর্মী নেবে রেল৷ তার নোটিফিকেশন জারি করা হবে ২০২০ সালের মে-জুন মাস নাগাদ৷

রেলমন্ত্রী জানান, রেলে ২ লক্ষ ৩০ হাজার আরও কর্মসংস্থান তৈরি হবে৷ বর্তমানে ১ লক্ষ ৩২ হাজার পদ খালি আছে৷ আগামী ২ বছরে ১ লক্ষ লোক আরও অবসর নেবেন৷ অর্থাত্‍‌ পুরনো Group C ও Group D-র শূন্যপদ ও এ বার নতুন তৈরি হওয়া শূন্য পদ মিলিয়ে আগামী ২ বছরে প্রচুর কর্মী নেবে রেল৷

প্রথম পর্যায়ে সংরক্ষণের পলিসি অনুযায়ী, এসসি, এসটি ও ওবিসিদের জন্য সংরক্ষিত থাকবে যথাক্রমে ১৯,৭১৫টি, ৯,৮৫৭টি ও ৩৫,৪৮৫টি আসন। এছাড়া আর্থিক ভাবে পিছিয়ে পড়া উচ্চবর্ণের জন্য ১০ শতাংশ সরকারি সংরক্ষণ মেনেই নিয়োগ করবে ভারতীয় রেল৷ উচ্চবর্ণের সংরক্ষণের আওতায় ১৩ হাজার জনের চাকরি হবে৷ রেলই প্রথম সরকারি সংস্থা, যারা নিয়োগে উচ্চবর্ণের সংরক্ষণ চালু করার কথা ঘোষণা করল৷

ফাইল ছবি

প্রথম দফার পর দ্বিতীয় দফার নিয়োগ শুরু হবে। ৯৯,০০০-এর মধ্যে এসসি, এসটি ও ওবিসিদের জন্য সংরক্ষিত থাকবে যথাক্রমে ১৫০০০টি, ৭৫০০টি ও ২৭,০০০টি আসন। আর উচ্চবর্ণের জন্য ১০,০০০।