ইন্টারনেট থেকে সংগৃহীত

নয়াদিল্লি: আপনি ট্রেনে উঠলে টিকিট কাটেন তো? যদি তেমন না হয় তাহলে এবার থেকে আপনার সমস্যা বাড়বে নয়তো কমবে না। পাশাপাশি প্রয়োজনের বেশি লাগেজ সঙ্গে থাকলে তাও বাড়াতে পারে বিপদ। অন্যদিকে, স্টেশন চত্বরে নোংরা ফেললে অথবা ধুমপান করলেও হতে পারে কঠিন শাস্তি। কারণ, এই বিষয়গুলিকে কমাতে উদ্যোগী হয়ে ভারতীয় রেল এবার বিশেষ অভিযান শুরু করেছে।

বিনা টিকিটে অনেক ট্রেন যাত্রার ফলে জরিমানার মুখে পরতে হয়েছে এরকম মানুষ অনেক। শুধু তাই নয় জেনারেল কামরার ট্রেন যাত্রা করে ধূমপান ও পানের পিক ফেলে ষ্টেশন চত্বরকে নোংরা করার ঘটনা প্রায়ই ঘটতে দেখা যায়। এই ঘটনা কমানোর জন্য রেল কর্তৃপক্ষ কঠোর পদক্ষেপ নিতে চলেছে।

ভারতীয় রেলের উত্তর শাখার পাঁচটি ডিভিশন যথাক্রমে লখনউ, মোরাদাবাদ,দিল্লি, ফিরোজপুর এবং আম্বালা-তে টিকিট চেকিং অভিযান চালিয়ে ২১ আগস্ট ৩৭৮০ জন এবং ২২ আগস্ট ৪৮৭১ জনের থেকে জরিমানা নেওয়া হয়। তাছাড়া, বিশেষ অভিযান চালিয়ে রেল কতৃপক্ষ প্রায় ৩৮ লক্ষ টাকা জরিমানা বাবদ আদায় করেছে বলে জানিয়েছে।

ভারতীয় রেলের উত্তর শাখার জনসংযোগ অফিসার দীপক কুমার জানান এই বিশেষ অভিযান চালানো হচ্ছে এই পাঁচটি ডিভিশনে উত্তর শাখার এবং এই অভিযান চালিয়ে কেবলমাত্র বিনা টিকিটে যাত্রা করা প্যাসেঞ্জার নয় স্টেশন চত্বর নোংরা করার জন্য বেশ কয়েকজনকে ধরা হয়েছে। এছাড়াও এই অভিযানে লক্ষ্য রাখা হচ্ছে যাত্রীরা ইমারজেন্সি কোটার অপব্যবহার করছেন কিনা বা চলার পথে ট্রেনকে নোংরা করছে কিনা।

রেলের দিল্লি ডিভিশনের পক্ষ থেকে এই মেগা টিকিট চেকিং অভিযান চালানো শুরু হয় ২২ আগস্ট ২০১৯। পুরনো দিল্লি থেকে গুরগাও রুটে, এছাড়াও যথাক্রমে দিল্লি রুয়ারি শাখায় ও ফরিদাবাদ ও সোনপত স্টেশনে। এই অভিযান চালিয়ে জরিমানা বাবদ ৫.১৬ লক্ষ টাকা প্রাপ্ত হয় রেলের। এছাড়াও ১৬২ টি কেস উঠে আসে যেখানে বিনা টিকিটে যাত্রা, টিকিটের অনিয়ম এই সকল বিষয় উঠে আসে। এছাড়াও ৪৯ জনকে ধরা হয় এবং ষ্টেশন চত্বর নোংরা করার অপরাধে ১৬,৩২০ টাকা জরিমানা বাবদ উঠে এসেছে।