অযোধ্যা: দীর্ঘ কয়েক দশকের লড়াইয়ের পরে অবশেষে অয্যোধ্যাতে তৈরি হচ্ছে রাম মন্দির। যা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে অপেক্ষা করে ছিলেন কোটি কোটি দেশবাসী। গত সপ্তাহে এই মন্দিরের ভূমি পুজোয় এসেছিলেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দীর্ঘ কয়েক বছর পরে এই মন্দির নিয়ে জনসাধারণের মধ্যে দেখা গিয়েছিল চূড়ান্ত উন্মাদনা। যা করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও ভাঁটা পড়েনি। আর রাম মন্দিরের মত করেই এবারে যাত্রীদের জন্য সাজানো হবে অযোধ্যা ষ্টেশন।

জানা গিয়েছে, রাম মন্দিরের মত ঝাঁ চকচকে ভাবে তৈরি করা হবে অযোধ্যা রেল ষ্টেশন। এই স্টেশনে থাকবে অত্যাধুনিক সুযোগ সুবিধা। যার ফলে সুবিধা পাবেন সাধারণ মানুষ। এই ষ্টেশন তৈরি করা হবে হুবহু রাম মন্দিরের আদলে। পাশপাশি এই জায়গা যাতে দ্রুত জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে ওঠে সেই বিষয়েও প্রশাসনের তরফে বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে। ভারতীয় রেলের তরফে জানানো হয়েছে লখনউ বারানসী সহ আশেপাশের সব জায়গার সঙ্গে অযোধ্যাকে যুক্ত করা হবে। আর ইতিমধ্যে এই কাজের জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে কয়েক কোটি অর্থ। প্রথম দফার কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। মনে করা হচ্ছে যা শেষ হবে আগামী ২০২১ সালের মধ্যে।

এছাড়াও জানা গিয়েছে ওই জায়গাতে রেল কোয়ার্টার তৈরি করা হবে কর্মীদের সুবিধার জন্য। পাশপাশি প্রায় ১৫ টি টিকিট কাউন্টার তৈরি করা হবে। প্রথম শ্রেণি, দ্বিতীয় শ্রেণি জেনারেল এবং লেডিস ওয়েটিং রুম তৈরি করা হবে।পাশপাশি দুটি ফুট ওভার ব্রিজ তৈরি করা হবে। এছাড়া ফুড প্লাজা,সহ বেশ কিছু খাবারের আউটলেট তৈরি করা হবে।

এছাড়াও বেশ কিছু পদক্ষেপ নেওয়া হবে যাত্রীদের কথা ভেবে তার মধ্যে ট্যাক্সি স্ট্যান্ড, ভিআইপি লাউঞ্জ সহ বেশ কিছু কায়গা তৈরি করা হবে। দ্বিতীয় দফার মধ্যে স্টেশনের আর বেশ কিছু পদক্ষেপ নেওয়া হবে। অর্থাৎ রাম মন্দিরের মতই ঝা চকচকে হতে চলেছে অযোধ্যা ষ্টেশন।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও