মস্কো: প্রথমবার সন্ত্রাস-বিরোধী অভিযানে যৌথভাবে অংশ নিল ভারত ও পাকিস্তান। নজিরবিহীনভাবে রাশিয়া এই মহড়া শুরু করছে দুই দেশ। সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজেশনের অংশ হিসেবে ই মহড়ায় অংস নিচ্ছে ভারত ও পাকিস্তানের সেনাবাহিনী। সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে যৌথভাবে লড়াইয়ের উদ্দেশেই এই মহড়া চালানো হচ্ছে।

২০১৭-র জুন মাসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উপস্থিতিতে ভারত ওই অর্গানাইজেশনের পূর্ণাঙ্গ অংশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা পায়। বছরে দু’বার অর্গানাইজেশনের সদস্যরা পিস মিশন এক্সারসাইজে অংস নেন। এবারের মহড়া চলবে ২৯ অগস্ট পর্যন্ত। রাশিয়ার চেবারকুলে হবে সেই মহড়া।

চিন, রাশিয়া, কাজাকস্তান, তাজিকিস্তান, ভারত ও পাকিস্তান থেকে অন্তত ৩০০ সৈন্য সেখানে অংশ নিয়েছে।

বায়ুসেনা সহ ভারতের তরফে সেখানে পৌঁছেছে মোট ২০০ সেনা জওয়ান। ওই মহড়ায় ফায়ারিং, হেলিবোর্ন অপারেশন সহ একাধিক বিষয়ে জোর দেওয়া হবে। এছাড়াও বাড়ির ভিতরে ঢুকে কীভাবে শত্রুনিধন করা যায় সেই মহড়াতেও অংশ নেবে ভারত।

বিশেষজ্ঞদের মতে, ভারত ও পাকিস্তানের মত দুটি দেশ যারা সবসময় সামরিক শত্রু হিসেবে থাকে, তাদের মধ্যে বিশ্বাসযোগ্যতা তৈরির একটা বড় সুযোগ এই মহড়া।