সৌপ্তিক বন্দ্যোপাধ্যায় , কলকাতা : এখনও নিখোঁজ বাংলার পর্বতারোহী দীপঙ্কর ঘোষ। মনে কড়া হচ্ছে তিনি মৃত। তাঁর মৃতদেহটুকু যাতে ফিরে আসে তার জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা করা হবে বলে জানিয়েছেন, বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। অ্যাডভেঞ্চার স্পোর্টস অফ বেঙ্গলকে এমনই আশ্বাস দিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী।

আজ ছাঙ দাওয়া শেরপা সেভেন সামিটের ডিরেক্টর এর নেতৃত্বে মিংমা শেরপা ও অন্যান্য শেরপাদের ১৪ জনের একটি দল পৃথিবীর পঞ্চম উচ্চতম শৃঙ্গ মাকালু থেকে নারায়ণ সিং ও দীপঙ্কর ঘোষের বডি উদ্ধারের জন্য বেস ক্যাম্প থেকে যাত্রা শুরু করেছে। ইন্ডিয়ান আর্মির নারায়ণ সিং মাকালু এক্সপেডিশন সামিট করে ফেরার সময় ৮২০০ মিটার উচ্চতায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। শেরপারা আগে ৮২০০ মিটার উচ্চতায় নারায়ণ সিংয়ের বডি সনাক্ত করে তারপর দীপঙ্করের দেহের খোঁজ শুরু করবে। এই সার্চ এন্ড রেসকিউ ইন্ডিয়ান এমবাসি কাঠমান্ডুর তত্বাবধানে হচ্ছে।

আগেই বিদেশ মন্ত্রী সুষমা স্বরাজ জানিয়েছিলেন তারা বডি উদ্ধারে যথাসম্ভব চেষ্টা করবেন। হাওড়ার বাসিন্দা ক্লাইম্বার দীপঙ্কর ঘোষ মাকালু সামিট সম্পূর্ণ করে ক্যাম্প ফোরের কাছে আসার পর থেকে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। তিনি নিখোঁজ হয়ে যান। ১৯ মে’র সেই খবর পাওয়ার পর থেকে দুই দিন কেটেছে কোনও খবর পাওয়া যায়নি দীপঙ্কর ঘোষের। অত উচ্চতায় এত সময় ধরে বেঁচে থাকা অসম্ভব। তেমন কিছু হলে মিরাকেল হতে পারে। তাছাড়া অক্সিজেন কমবে সময়ের সঙ্গে। সেই অনুযায়ী অক্সিজেন ছাড়া ওই উচ্চতায় যেকোনো জীবের বেঁচে থাকা অসম্ভব।

শেরপাদের কথা অনুযায়ী সাতজন শেরপা এর আরও একটি টিম, তাসি লাকপা শেরপার নেতৃত্বে এক ইন্ডিয়ান ক্লাইম্বার রবি থাকারের দেহ আজ ক্যাম্প ফোর থেকে ক্যাম্প দুইতে নিয়ে আসছে। রবি থাকার যাকে এভারেস্ট অভিযানে ক্যাম্প ফোরের টেন্টের মধ্যে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। এর আগে বাংলার দুই ক্লাইম্বার বিপ্লব বৈদ্য (৪৮) ও কুন্তল কাঁড়ার (৪৬) কাঞ্চনজঙ্ঘা অভিযানে গিয়ে মারা গিয়েছেন। এখন পর্যন্ত এই মরসুমে ১১ টি দুর্ঘটনা ঘটল। তাদের মধ্যে কাঞ্চনজঙ্ঘা অভিযানে ৩ জন এভারেস্টে ২ জন মাকালুতে ৩ জনের প্রাণ গিয়েছে। লোৎসে , অন্নপূর্ণা , চোওউ শৃঙ্গতে এক জন করে ক্লাইম্বারের প্রাণহানি হয়েছে।

উল্লেখ্য, এ বার অন্যতম ব্যস্ততম সময় দেখছে এভারেস্ট। অন্তত ৩৭৮ জন শৃঙ্গ আরোহণ করার ব্যাপারে নেপাল সরকারের অনুমতি নিয়েছেন। এঁদের মধ্যে রয়েছেন বাংলার পিয়ালি বসাকও। পিয়ালি ২১ মে রাত ২টো নাগাদ সাউথ কল পেরোবেন বলে জানা গিয়েছে। সবকিছু ঠিক থাকলে ২২ মে তাঁর শিখর জয় করার কথা।